close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

‘বহুদিন কাছাকাছি ছিলাম, ওর চলে যাওয়া মেনে নেওয়া কঠিন’ বললেন অমর্ত্য সেন

১৯৬০-এ অর্থনীতিবিদ অর্মত্য সেনের সঙ্গে বিবাহ সূত্রে আবদ্ধ হয়েছিলেন নবনীতা দেবসেন। তাঁদেরই দুই কন্যা অন্তরা ও নন্দনা। তবে, নোবেলজয়ীর স্ত্রী হিসাবে তাঁর পরিচিতি সীমাবদ্ধ ছিল না

Updated: Nov 8, 2019, 01:01 PM IST
‘বহুদিন কাছাকাছি ছিলাম, ওর চলে যাওয়া মেনে নেওয়া কঠিন’ বললেন অমর্ত্য সেন
নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: গতকাল সন্ধে নিজের বাড়িতেই মারা যান লেখিকা নবনীতা দেবসেন। দীর্ঘদিন ধরে ভুগছিলেন ক্যানসারে। তাঁর এই চলে যাওয়ায় প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনও। নবনীতার প্রাক্তন স্বামীর কথায়,  “প্রতিক্রিয়া আর কী হতে পারে? সবাই যেমন মর্মাহত, আমিও। সেটা কেন হচ্ছে, তা তো বোঝা কঠিন নয়। আমি নিজে যেহেতু ওর কাছাকাছি বহুদিন ছিলাম, তাই আমার পক্ষে বড় কঠিন জিনিস...এ বিষয়ে আর বেশি কিছু আলোচনা করতে চাই না।”

১৯৬০-এ অর্থনীতিবিদ অর্মত্য সেনের সঙ্গে বিবাহ সূত্রে আবদ্ধ হয়েছিলেন নবনীতা দেবসেন। তাঁদেরই দুই কন্যা অন্তরা ও নন্দনা। তবে, নোবেলজয়ীর স্ত্রী হিসাবে তাঁর পরিচিতি সীমাবদ্ধ ছিল না। সাহিত্য জগতে তাঁর বিরাজ ছিল নিজস্ব পরিচিতিতেই। বলা হয়, আধুনিক সাহিত্যে রমরচনায় নবনীতার দেবসেনের জুড়ি মেলা ভার।  তাই তো সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায় জানান, “অমর্ত্য সেনের স্ত্রী সেটা তাঁর বড় পরিচয় নয়। নিজের পরিচয় কিন্তু যথেষ্ট গুরুত্ব পেয়েছে বাঙালি সমাজের কাছে। সবচেয়ে বড় কথা ওর প্রাণশক্তি। ওর এত প্রাণশক্তি যা বহু পুরুষের মধ্যেও থাকে না।”

আরও পড়ুন- নির্দেশই সার! শহরের বিভিন্ন দোকানে চলছে দেদার গুটকা বিক্রি

শীর্ষেন্দু আরও বলেন, “নবনীতা ব্যক্তিগতভাবে ভাল বন্ধু ছিল। আমার প্রিয় সাহিত্যিকও। সত্যি বলতে কি তাঁর লেখার ভীষণ ভক্ত ছিলাম। এমন রসবোধ সম্পন্ন সাহিত্যিক সত্যিই বিরল। রঙ্গ রসিকতাটাই সব কিছু নয়, জীবনকে দেখার যে ভঙ্গি, ওর মধ্যে আশ্চর্য ব্যতিক্রম।”