শেক্সপিয়র সরণিতে গয়নার দোকানে আগুন নেভাতে ব্যবহৃত অত্যাধুনিক প্রযুক্তি

ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকলের ২ টি ইঞ্জিন। আগুন নেভাতে  অত্যাধুনিক পদ্ধতি প্রয়োগ করা হয়।

Updated By: Feb 22, 2019, 09:24 AM IST
শেক্সপিয়র সরণিতে গয়নার দোকানে আগুন নেভাতে  ব্যবহৃত অত্যাধুনিক প্রযুক্তি

  নিজস্ব প্রতিবেদন: শেক্সপিয়র সরণিতে একটি গয়নার দোকানে আগুন। ঘটনাস্থলে দমকলের ২ টি ইঞ্জিন। কালো ধোঁয়ায় ঢেকেছে এলাকা।

শুক্রবার সকালে শেক্সপিয়র সরণিতে একটি নামি গয়নার দোকানে আগুন লাগে। দোকানের ভিতর থেকে বেরোতে থাকে কুণ্ডলীকৃত কালো ধোঁয়া।

আরও পড়ুন: পুরুলিয়ায় আগুনে ঝলসে মৃত্যু হল একই পরিবারের ৪ শিশু-সহ ৭ জনের

এলাকাবাসীরাই প্রথমে দমকলে খবর দেন। ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকলের ২ টি ইঞ্জিন। আগুন নেভাতে  অত্যাধুনিক পদ্ধতি প্রয়োগ করা হয়।

দোকানের ভিতর থেকে বাইরে পর্যন্ত একটি মোটা পাইপ বসানো হয়। ওই পাইপটিকে দমকলের ভাষায় ‘স্মোক এগজস্টার’ বলা হয়। এর ফলে যে স্থানে আগুন লেগেছে, সেই গোটা এলাকার কালো ধোঁয়া ওই পাইপের মাধ্যমে বাইরে বার করে দেওয়া হয়। এর ফলে আগুন নেভানোর কাজ অনেক বেশি সহস হয়ে যায় দমকলকর্মীদের কাছে।

আরও পড়ুন: একাধিক সিভিক ভলেন্টিয়ার নিয়োগ করবে কলকাতা পুলিশ

বড় আগুন নেভানোর সময় অনেকক্ষেত্রেই ধোঁয়াতে অসুবিধায় পড়তে হয় দমকলকর্মীদের। দৃশ্যমানতা কম থানায় আগুনের উত্স খুঁজে পেতে সমস্যা হয়। এছাড়াও শ্বাসকষ্টের সমস্যা হয় দমকল কর্মীদের। পাশাপাশি ওই এলাকায় থাকা প্রত্যেকেরই। এই পাইপটি বাসনোর ফলে ধোঁয়া খুব সইজেই নির্দিষ্ট পথে বাইরে বার করে দেওয়া যায়।

আরও পড়ুন: RRB NTPC recruitment notification 2019: রেলের ১,৩০,০০০ শূন্য আসনের নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে ২৩ ফেব্রুয়ারি

দমকলমন্ত্রী হওয়ার পরই সুজিত বসু আগুন নেভাতে অত্যাধুনিক যন্ত্র ব্যবহারের কথা বলেন।  এধরনের পাইপের ব্যবহারে  দমকলকর্মীদের কাজ খুব সহজ হয়ে যায়।