WB By-polls: মঙ্গলবার ৪ বিধায়কের শপথগ্রহণ, রাজ্যপালের সঙ্গে ফের সংঘাত সরকারের

কে শপথবাক্য পাঠ করাবেন?  নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত জগদীপ ধনখড়ের।

Updated By: Nov 8, 2021, 07:21 PM IST
WB By-polls:  মঙ্গলবার ৪ বিধায়কের শপথগ্রহণ, রাজ্যপালের সঙ্গে ফের সংঘাত সরকারের

নিজস্ব প্রতিবেদন: সদ্য সমাপ্ত উপনির্বাচনে সবুজ ঝড়। ৪ আসনেই জিতেছেন তৃণমূল প্রার্থীরা। আগামিকাল, মঙ্গলবার বিধানসভায় শপথ নেবেন নবনির্বাচিত বিধায়করা। সূত্রের খবর, রাজ্যপাল নিজে শপথ বাক্য পাঠ করাবেন না। তাহলে? স্পিকারকে নয়, বরং বিধানসভার ডেপুটি স্পিকারকে দায়িত্ব দিয়েছেন তিনি। রাজ্যপালের এই সিদ্ধান্তেই ফের নতুন করে মাথাচাড়া দিল সংঘাত। 

বিধানসভা ভোটের পর থেকে ভাঙন অব্যাহত গেরুয়াশিবিরে। রাজ্যের চার কেন্দ্রে উপনির্বাচনেও মুখ থুবড়ে পড়েছে বিজেপি। পুজোর পর উপনির্বাচন হল কোচবিহারের দিনহাটা, নদিয়ার শান্তিপুর, উত্তর ২৪ পরগনার খড়দহ ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার গোসাবায়। শান্তিপুর ও দিনহাটা হাতছাড়া হওয়াই শুধু নয়, শান্তিপুর বাদে বাকি তিন কেন্দ্রে জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে বিরোধীদের। 

কোচবিহারের দিনহাটায় রেকর্ড ভোটে জিতেছেন বিধানসভা ভোটে তৃণমূলের পরাজিত প্রার্থী উদয়ন গুহ। খড়দহে শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়, শান্তিপুরে ব্রজকিশোর গোস্বামী ও গোসাবায় সুব্রত মণ্ডল জয়লাভ করেছেন। জানা গিয়েছে, যেদিন উপনির্বাচনের ফল ঘোষণা হয়, সেদিনই নবনির্বাচিত বিধায়কদের দ্রুত শপথগ্রহণের আর্জি জানিয়ে রাজ্যপালকে চিঠি দিয়েছিল তৃণমূল পরিষদ দল। আগামিকাল মঙ্গলবার বিধানসভায় হবে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান।

আরও পড়ুন: Calcutta HC: পরিকল্পনা ছাড়াই স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য! জনস্বার্থ মামলা দায়ের হাইকোর্টে

তাহলে সংঘাত কীসের? পুজোর আগে উপনির্বাচন হয়েছিল ভবানীপুর কেন্দ্রে। সঙ্গে মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুর ও সামশেরগঞ্জে সাধারণ নির্বাচন। নিজের পুরনো কেন্দ্র ভবানীপুর থেকে রেকর্ড ভোটে জিতে বিধায়ক নির্বাচিত হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জঙ্গিপুর ও সামশেরগঞ্জেও জেতেন তৃণমূল প্রার্থীরা। সেবার রীতি ভেঙে বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী-সহ ৩ নবনির্বাচিত বিধায়ককে শপথবাক্য পাঠ করিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। সূত্রের খবর, এবার শপথবাক্য পাঠ করাবেন না তিনি। বিধানসভার ডেপুটি স্পিকারকে দায়িত্ব দিয়েছেন রাজ্যপাল। 

আরও পড়ুন: 'গ্যাস-পেট্রল-ডিজেল থেকে ৪ লক্ষ কোটি টাকা তুলেছে কেন্দ্র', দাবি মমতার

রাজভবনে সাধারণত মুখ্যমন্ত্রী-সহ মন্ত্রীদের শপথবাক্যপাঠ করান রাজ্যপাল। আর বিধানসভায় বিধায়কদের শপথবাক্য পাঠ করান অধ্যক্ষ বা স্পিকার।  চাইলে রাজ্যপালও কিন্তু সাংবিধানিক ক্ষমতাবলেই বিধানসভায় গিয়ে বিধায়কদের শপথবাক্য পাঠ করাতে পারেন। তবে, এ রাজ্যের রাজ্যপালরা এতদিন সংবিধানের ১৮৮ ধারা অনুযায়ী সেই ক্ষমতা দিয়ে রেখেছিলেন বিধানসভার অধ্যক্ষ বা স্পিকারকে। সেক্ষেত্রে রীতিমাফিক রাজ্যপাল যদি শপথবাক্য পাঠ না করান, তাহলে সেই দায়িত্ব পালন করবেন স্পিকার। তাহলে এবার কেন ডেপুটি স্পিকারকে দায়িত্ব দেওয়া হল? প্রশ্ন তুলেছে তৃণমূল পরিষদীয় দল। বিষয়টি পুনর্বিবেচনার জন্য রাজ্যপালকে চিঠিও দেওয়া হতে পারে বলে খবর।

(Zee 24 Ghanta App : দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)