Kolkata Metro: কলকাতায় একটা ইতিহাসের অবসান, জন্মদিনে বিদায় মেট্রোর নন-এসি রেকের

জন্মদিনে বিশেষ প্রদর্শনী মহানায়ক উত্তমকুমার স্টেশনে।

Updated By: Oct 24, 2021, 08:23 PM IST
Kolkata Metro: কলকাতায় একটা ইতিহাসের অবসান, জন্মদিনে বিদায় মেট্রোর নন-এসি রেকের

নিজস্ব প্রতিবেদন: ৩৮ তম জন্মদিনে নন এসি রেক-কে বিদায় জানাল কলকাতা মেট্রো। সোমবার থেকে থেকে শহরের পাতাল পথে ছুটবে শুধুমাত্র এসি রেক। সংখ্যায় কত? মেট্রোরেলের জনসংযোগ আধিকারিক রূপায়ণ মিত্র জানিয়েছেন, এখন কলকাতায় ২৮টি রেক রয়েছে। সেগুলি ব্যবহার করেই গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়া হবে যাত্রীদের।

দেখতে দেখতে তিন দশক পেরিয়ে গিয়েছে। কলকাতার মেট্রো রেলের সূচনা হয় ১৯৮৪ সালের, ২৪ অক্টোবর। সেদিন এসপ্ল্যানেড থেকে প্রথমবার যাত্রী নিয়ে শুরু হয়েছিল মেট্রোর পথচলা। গন্তব্য ছিল, ভবানীপুর। এখন যে স্টেশনের নাম নেতাজি ভবন। স্রেফ যাত্রাপথের পরিধি নয়, সময়ের সঙ্গে বদলেছে মেট্রো পরিষেবাও। বলা ভালো, আরও আধুনিক হয়েছে।

আরও পড়ুন: PG Hospital : নতুন বছরে ক্যান্সার চিকিৎসা উৎকর্ষ কেন্দ্র হচ্ছে পিজি

২০১০ সালের ৭ অক্টোবর প্রথমে এসি রেক আসে কলকাতায় মেট্রোয়। তখন সংখ্যাটা ছিল মাত্র ২। সেই সংখ্যাটাই বাড়তে বাড়তে এখন মেট্রোর সব কামরায় এখন এসি। এদিন মেট্রো রেলের তরফে বিবৃতি দিয়ে জানানো হল, ‘আমরা গর্বের সঙ্গে জানাচ্ছি যে বাতানুকূল ছাড়া (নন এসি) মেট্রো পরিষেবা আজ থেকে সম্পূর্ণ ভাবে বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। হাতে পর্যাপ্ত বাতানুকূল কামরা থাকায় আজকের পরে যাত্রী পরিষেবায় আর কোনও দিন কোনও নন এসি মেট্রো চালানো হবে না! সুড়ঙ্গের মধ্যে নন এসি মেট্রোর সেই গর্জন, ভেতরের সেই স্যাঁতস্যাঁতে আবহাওয়া আর কখনও আপনাদের সহ্য করতে হবে না! আপনার প্রিয় নন এসি মেট্রো দরজা আর কখনও খুলবে না, আর কখনও মেট্রোর মধ্যে সেই পাখা চলবে না! সব এখন ইতিহাসের পাতায়!’

 

মহানায়ক উত্তমকুমার স্টেশনে পালিত হল কলকাতা মেট্রোর ৩৭ তম জন্মদিনও। বিশেষ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছিল একটি নন-এসি রেকে। প্রথম মেট্রোর ঝলক, রঙিন পোস্টার এবং মেট্রোর বিবর্তনের ছবি দিয়ে সাজানো হয়েছিল রেকটিকে। তুলে ধরা হয়েছিল মেট্রো ইতিহাসও। প্রদর্শনীর শেষে ওই নন এসি মেট্রো রেকটিকে পাঠিয়ে দেওয়ার নোয়াপাড়া কাডশেডে।

(Zee 24 Ghanta App : দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)