#উৎসব: প্রতিমা নিরঞ্জনের দিন ঘোষণা করল Kolkata Police, নির্দিষ্ট হল এই চারটি দিন

দুর্গাপুজোয় আঁটসাঁট নিরাপত্তা কলকাতা পুলিসের।

Updated By: Oct 7, 2021, 03:20 PM IST
#উৎসব: প্রতিমা নিরঞ্জনের দিন ঘোষণা করল Kolkata Police, নির্দিষ্ট হল এই চারটি দিন

নিজস্ব প্রতিবেদন: এখনও কাটেনি তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা। ফলে গতবারের মতোই এবারও বাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপুজো (Durga Puja 2021) নিয়ে সতর্ক কলকাতা পুলিস (Kolkata Police)। নিরাপত্তা ব্যবস্থা আঁটসাঁট করার পাশাপাশি বিসর্জনেরও দিনও ঘোষণা করল প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার কলকাতা পুলিসের (Kolkata Police) আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন কমিশনার সৌমেন মিত্র (Soumen Mitra)। ২০২০-তে কোভিডের আশঙ্কা ও হাইকোর্টের নির্দেশের জেরে পুজো মণ্ডপ (Durga Puja 2021) এবং রাস্তায় ভিড় কম ছিল। এবারও হাইকোর্টের একই নির্দেশ বহাল রয়েছে। তবে গতবারের তুলনায় রাস্তাঘাট এবং পুজো মণ্ডপগুলিতে (Durga Puja 2021) ভিড় বেশি হবে বলে মনে করছে পুলিস। বিশেষ করে গাড়ির সংখ্যা অনেক বেশি হতে পারে। তাই যানজট এড়াতে ট্র্যাফিক ম্যানেজমেন্টের উপর জোড় দিতে বলা হয়েছে। কলকাতার গুরুত্বপূর্ণ ক্রসিংগুলোতে ট্র্যাফিক পুলিশের সঙ্গে ল অ্যান্ড অর্ডার ফোর্সকেও থাকতে বলা হয়েছে। 

আরও পড়ুন: Durga Pujo 2021: অতিমারির আতঙ্ক, দুর্গাপুজোয় নয়া নির্দেশিকা আদালতের

শুধু রাতে নয়। দিনের বেলাতে অনেক লোক বেরোতে পারে। তাই দিনের বেলাতেও বেশি পরিমাণ পুলিশ মোতায়েন রাখতে বলা হয়েছে। যত্রতত্র যাতে পার্কিং না হয়, সেই বিষয়টিও দেখার নির্দেশ দিয়েছেন কলকাতা পুলিশের (Kolkata Police) কমিশনার সৌমেন মিত্র (Soumen Mitra)। 

শহর কলকাতায় প্রায় ২৭০১টি দুর্গাপুজো (Durga Puja 2021) হয়। কলকাতা পুলিসের তরফে এবার প্রতিমা নিরঞ্জনের (Durga Puja 2021) জন্য চারদিন বরাদ্দ করা হয়েছে। ১৫ অক্টোবর দশমী থেকে ১৮ অক্টোবর সোমবার পর্যন্ত প্রতিমা নিরঞ্জন (Durga Puja 2021) করা যাবে। 

আরও পড়ুন: #উৎসব: মল্লরাজের কুলদেবী মৃন্ময়ীর পট আঁকেন 'ফৌজদার' পরিবার

প্রতিপদ থেকেই পুজোর (Durga Puja 2021) উদ্বোধন শুরু করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। এবারও উদ্যোক্তাদের বিধি-নিষেধ মেনেই দুর্গাপুজোর (Durga Puja 2021) আয়োজন করতে হবে। সেই মর্মেই পুজোর নয়া নির্দেশিকা জারি করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। সিঁদুর খেলা, আরতি, অঞ্জলি -সহ সব আচারে শর্তসাপেক্ষে অনুমতি দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। তবে বড় ক্লাবের ক্ষেত্রে ৫০-৬০ জন নথিভুক্ত সদস্য  এবং ছোট ক্লাবের ক্ষেত্রে ১০-১৫ জন আচার পালন করতে পারবেন