সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ পুরভোট পরিচালনার আবেদন জানিয়ে টুইট রাজ্যপালের

দিন কয়েক আগেই একটি চিঠিও রাজ্যপালের তরফে পাঠানো হয় রাজ্য নির্বাচন কমিশনার সৌরভ কুমার দাসকে।

Reported By: শ্রেয়সী গঙ্গোপাধ্যায় | Updated By: Mar 16, 2020, 09:19 AM IST
সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ পুরভোট পরিচালনার আবেদন জানিয়ে টুইট রাজ্যপালের

নিজস্ব প্রতিবেদন: পুরভোট নিয়ে কমিশনের বৈঠকের আগেই সুষ্ঠু ভোটের আবেদন জানিয়ে টুইট করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। আজ ভোরে টুইটে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় সুষ্ঠু , অবাধ ও নিরপেক্ষ ভোট পরিচালনের আবেদন রেখেছেন রাজ্য নির্বাচন কমিশনের কাছে। তিনি জানিয়েছেন সুষ্ঠু ভোট সম্পন্ন করা গণতান্ত্রিক দেশে জাতীয় দায়বদ্ধতা। ব্যর্থতার দায়ও নিতে হবে কমিশনকেই। এই আর্জি জানিয়ে দিন কয়েক আগেই একটি চিঠিও রাজ্যপালের তরফে পাঠানো হয় রাজ্য নির্বাচন কমিশনার সৌরভ কুমার দাসকে। চিঠিতে রাজ্যের আসন্ন পুরভোটকে সুষ্ঠুভাবে পরিচালনের আর্জি জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, করোনার আবহে ইতিমধ্যেই অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে পুরভোট নিয়ে। পুরভোট নিয়ে আলোচনার জন্য সোমবার রাজ্যের ১০টি স্বীকৃত রাজনৈতিক দলকে সর্বদলীয় বৈঠকে ডেকেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। পুরভোট নিয়ে বিজেপির অবস্থান  ইতিমধ্যেই স্পষ্ট। দলের রাজ্য সভাপতির কথায়,''বিপর্যয়ের আশঙ্কা থাকলে পুরভোট পিছিয়ে দেওয়াই ভাল।'' বিজেপি নেতা মুকুল রায় বলেছেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনাকে প্যানডেমিক ঘোষণা করেছে। ভারত সরকারও বিপর্যয় আখ্যা দিয়েছে। স্কুল-কলেজ বন্ধ করে দিয়েছে রাজ্য সরকার। এই পরিস্থিতিতে ভোটটা হবে কীভাবে?''

তার আগে বিষয়টি নির্বাচন কমিশনের উপরে ছাড়ার কথা জানান পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও ফিরহাদ হাকিম। তৃণমূলের মহাসচিব বলেন,''অস্বাভাবিক পরিস্থিতি। আজ বৈঠক। পুরভোটের সিদ্ধান্ত কমিশন নেবে। আমাদের দলের মধ‍্যেও আলোচনা চলছে।'' নির্বাচন কমিশনই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানিয়েছেন কলকাতা পুরসভার মেয়র। তবে করোনা আতঙ্ক শাসক দলের কাছে ভোট পিছিয়ে দেওয়ার সুযোগ বলে মনে করেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী।