জোড়া তালপুকুরের বিশ বাঁও জলে হাবুডুবু সিপিএম-কংগ্রেস সমঝোতা

 শরিকদের পুরুলিয়া ও বসিরহাটের আবদার রাখতে গিয়ে বিড়ম্বনায় সিপিএম। 

Updated: Mar 13, 2019, 11:28 PM IST
জোড়া তালপুকুরের বিশ বাঁও জলে হাবুডুবু সিপিএম-কংগ্রেস সমঝোতা

মৌমিতা চক্রবর্তী

নামে তালপুকুর। অথচ ঘটিও ডোবে না। এমন দুটি 'তালপুকুর'ই বিড়ম্বনায় ফেলেছে সিপিএমকে। আর তাতে 'শ্যাম রাখি না কূল' দশা হয়েছে আলিমুদ্দিনের। রায়গঞ্জ ও মুর্শিদাবাদ নিয়ে বিবাদ মেটার পর মাথাব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ফ্রন্ট শরিকদের আবদার। আর সে কারণে বুধবার প্রার্থীতালিকা প্রকাশ করার কথা থাকলেও পিছিয়ে গেলেন বিমান বসু। 

পুরুলিয়া আর বসিরহাট। কংগ্রেসের সঙ্গে সমঝোতায় কাঁটা এখন দুটি কেন্দ্র। আলিমুদ্দিনে শরিকদের সঙ্গে বৈঠকেও রফা সূত্র মিলল না। দুই শরিক, ফরোয়ার্ড ব্লক আর সিপিআই আসন ছাড়তে নারাজ। কংগ্রেসও অনড়। আর এই জটিলতায় আটকে বামেদের প্রার্থী তালিকা। পুরুলিয়া, বসিরহাট, কোচবিহার এবং জলপাইগুড়ি। সমস্যার কেন্দ্রে ছিল চারটি আসন। কংগ্রেস দাবি করলেও, শরিকি আপত্তিতে চারটি কেন্দ্র ছাড়তে পারছিল না সিপিএম। এই পরিস্থিতিতে বুধবার ফের  শরিকদের নিয়ে বৈঠক করে সিপিএম।

সূত্রের খবর, আলিমুদ্দিনের বৈঠকে কোচবিহার, জলপাইগুড়ি নিয়ে শরিকদের সুর কিছুটা নমনীয়। কিন্তু পুরুলিয়া আর বসিরহাটে অনড় ফরওয়ার্ড ব্লক ও সিপিআই। ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য সম্পাদক নরেন চট্টোপাধ্যায়ের কথায়,''প্রার্থী তালিকায় কিছু নাম বাকি ছিল। বামফ্রন্টের বৈঠকে চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে।  আর ফরওয়ার্ড ব্লক পুরুলিয়ায় লড়ছে''। সুর চড়িয়ে সিপিআইয়ের রাজ্য সম্পাদক স্বপন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ''কংগ্রেস যা ইচ্ছা চাইছে। সেটা হবে না। বামপন্থীরা বসিরহাট ছাড়তে পারব না। কংগ্রেসের পক্ষ থেকে আমাদের কাছে বসিরহাটের দাবি জানানো হয়নি''। 

কংগ্রেসও অনড়। সমঝোতার শর্ত মেনে ইতিমধ্যেই রায়গঞ্জ আর মুর্শিদাবাদ ছেড়ে দিয়েছে কংগ্রেস। অন্যদিকে দুই শরিকও অনড়। শ্যাম রাখি না কূল? এই দ্বন্দ্বে বামেদের প্রার্থী তালিকা এখন বিশ বাঁও জলে। সূত্রের খবর, বাম শরিক এবং কংগ্রেস, দুপক্ষের সঙ্গে ফের বৈঠক করবে সিপিএম। রাজনৈতিক মহলের প্রশ্ন, রাজ্যে বিজেপির উত্থানে কোণঠাসা বামপন্থীরা। সিপিআই ও ফরওয়ার্ড ব্লকের সংগঠন আর আস্ত নেই। এমতাবস্থায় সমঝোতার পথে বাগড়া দেওয়া কি গোয়ার্তুমি নয়? 

আরও পড়ুন- সাংবাদিকদের চোখে ধুলো দিয়ে ঝাড়খণ্ড যাচ্ছি বলে দিল্লির বিমানে উঠলেন অর্জুন সিং