close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

অযথা আতঙ্ক ছড়াবেন না, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলায় প্রস্তুত প্রশাসন : মুখ্যমন্ত্রী

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলায় নবান্নে খোলা হয়েছে কন্ট্রোলরুম। সেখান থেকেই পরিস্থিতির উপর নজর রাখবেন মুখ্যমন্ত্রী।

Kamalika Sengupta | Updated: Nov 9, 2019, 06:58 PM IST
অযথা আতঙ্ক ছড়াবেন না, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলায় প্রস্তুত প্রশাসন : মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদন : অযথা আতঙ্ক ছড়াবেন না। ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় প্রশাসনের তরফে সমস্ত রকম পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। উপকূলবর্তী এলাকা থেকে ইতিমধ্যেই প্রায় দেড় লাখের বেশি মানুষকে অন্যত্র নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। নবান্নে বসে এমনটাই বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলায় নবান্নে খোলা হয়েছে কন্ট্রোলরুম। সেখান থেকেই পরিস্থিতির উপর নজর রাখবেন মুখ্যমন্ত্রী। দফায় দফায় আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করছেন তিনি। সবাইকে নিরাপদে থাকার পরামর্শ দেন তিনি। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৫৫ হাজার, উত্তর ২৪ পরগনায় ৪৩ হাজার, পূর্ব মেদিনীপুরে ৫৫ হাজার, পশ্চিম মেদিনীপুরে ১ হাজার, হুগলীতে ৯ হাজার ৪২৬ জন, হাওড়ায় ১০ হাজার ৪০০ জন, কলকাতায় ২ হাজার ৫০০ জনকে সরানো হয়েছে।

শেষ উপগ্রহ চিত্রের পর্যবেক্ষণ বলছে, এই মুহূর্তে সাগরদ্বীপ থেকে ৮০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে অতি ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। কলকাতা থেকে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল-এর অবস্থান ১৮০ কিলোমিটার দূরে। সন্ধ্যা ৮ থেকে রাত ১১টার মধ্যে সাগরদ্বীপ ও খেমুপোড়ার মধ্যে আছড়ে পড়বে অতি ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। পূর্বাভাস অনুযায়ী, সন্ধ্যা ৬টার পর থেকে উপকূলে হাওয়ার দাপট বাড়বে। ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে উপকূল এলাকায়। ধীরে ধীরে ঝড়ের গতিবেগ বৃদ্ধি পাবে। ভূভাগে আছড়ে পড়ার সময় অতি ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় বুলবুল-এর গতিবেগ থাকবে ১১০ থেকে ১২০ কিলোমিটার। ঘূর্ণিঝড়ের সর্বোচ্চ গতিবেগ হতে পারে ১৩৫ কিলোমিটার।

আরও পড়ুন, অতি ভয়ঙ্কর বুলবুল-এর দাপট শুরু কলকাতায়, বালিগঞ্জে গাছ পড়ে মৃত যুবক

সন্ধ্যার পর থেকে কলকাতাতেও বাড়বে হাওয়ার দাপট। ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে কলকাতার উপর দিয়ে। আজ সকাল থেকেই কলকাতার আকাশের মুখভার। শুরু হয়ে গিয়েছিল বৃষ্টি। বেলা যত বেড়েছে ততই বেড়েছে বৃষ্টির পরিমাণ। ঘূর্ণিঝড় বুলবুল-এর দাপটে ঘাটালে শুরু হয়ে গিয়েছে ঝড়। ইতিমধ্যেই বিপর্যস্ত ঝড়খালি। হিঙ্গলগঞ্জে ফুলে ফেঁপে উঠেছে ইছেমতী নদী। বৃষ্টি শুরু হয়ে গিয়েছে উত্তর ২৪ পরগনাতেও।