close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

শিক্ষকের কাটা আঙুল জোড়া লাগাল কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল

কিন্তু ২৪ ঘণ্টা কেটে যাওয়ার পরও কীভাবে সেই আঙুল ফের জোড়া লাগানো সম্ভব হল? বিস্মিত হচ্ছেন অনেকেই।

Tanmay Pramanik | Updated: Aug 13, 2019, 05:15 PM IST
শিক্ষকের কাটা আঙুল জোড়া লাগাল কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল

নিজস্ব প্রতিবেদন: কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের সাফল্যের মুকুটে জুড়ল আরও এক নয়া পালক। শিক্ষকের কাটা আঙুল জোড়া লাগালেন কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসকরা। ৬ জুন বাড়িতে ইলেক্ট্রিকের কাজ করতে গিয়ে ডানহাতের বুড়ো আঙুল কাটা পড়ে পাথরপ্রতিমারর বাসিন্দা প্রাইমারি স্কুল শিক্ষক অনুপকুমার প্রামাণিকের।

এরপর নিজেই সেই আঙুল স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যান অনুপবাবু। সেখানে কাজ না হওয়ায় কাটা আঙুল প্লাস্টিকে ভরে নিয়ে তিনি চলে আসেন কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। সঙ্গে সঙ্গে ভর্তি করে নেওয়া হয় তাঁকে। যদিও তখন অপারেশন থিয়েটার না মেলায় আঙুলটি সংরক্ষণ করে রাখা হয়। পরের দিন অর্থাৎ ৭ জুন পর দীর্ঘ অস্ত্রোপচারের পর ফের জোড়া লাগে অনুপকুমার প্রামাণিকের কাটা আঙুল।

ডা. প্রবীর জশ, ডা. শান্তনু সুবা, ডা. বিশ্বজিৎ মন্ডল ও ডা. অমিও ওয়ার্ক সহ প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের ৪ চিকিৎসকের চেষ্টায় জোড়া লাগে আঙুল। এখন আগের মতোই সমস্ত কাজ করতে পারছেন অনুপবাবু। কাটা যাওয়া আঙুল অপ্রত্যাশিতভাবে ফিরে পেয়ে খুশি রোগীও। দীর্ঘ অস্ত্রোপচারের পর সাফল্যে খুশি চিকিৎসকরাও।

আরও পড়ুন: ফের মিরাক্যাল! স্টেজ ফোর ফুসফুসের ক্যান্সারকে হারিয়ে জীবনযুদ্ধ জয় হালিশহরের অমিতেরও

কিন্তু ২৪ ঘণ্টা কেটে যাওয়ার পরও কীভাবে সেই আঙুল ফের জোড়া লাগানো সম্ভব হল? বিস্মিত হচ্ছেন অনেকেই। চিকিৎসকরা বলছেন, হাত অথবা পা বাদ গেলে এই কাজ কঠিন হত। যেহেতু শরীরের একটি ছোটো অংশ বাদ গিয়েছিল এবং রোগীর তৎপরতায় সেই কাজ করা কিছুটা হলেও সহজ হয়েছে। সবমিলিয়ে এই সাফল্যে খুশি রোগী ও চিকিৎসক দু-তরফই।