মেডিক্যালে কোভিড ডাক্তার-নার্সদের আড়াই মাসের খাবারের বিল দেড় কোটি!

চিকিৎসক-নার্সদের খাবারের জন্য কোভিড ফান্ড থেকে খাবারের ব্যবস্থা করেছিল রাজ্য সরকার।

Updated By: Sep 29, 2020, 09:15 PM IST
মেডিক্যালে কোভিড ডাক্তার-নার্সদের আড়াই মাসের খাবারের বিল দেড় কোটি!

তন্ময় প্রামাণিক: আড়াই মাসে করোনার চিকিৎসায় থাকা চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের খাবারের বিল দেড় কোটি টাকা! কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে খানাপিনার বিলের এমন বহর দেখে চক্ষু চড়কগাছ স্বাস্থ্য ভবনের। করোনার চিকিৎসার জন্য হাসপাতালেই ২৪ ঘণ্টা সময় কাটাতে হচ্ছিল চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের। তাঁদের জন্য বন্দোবস্ত করা হয়েছিল খাবার। ওই খাবারের দাম পৌঁছে গিয়েছে দেড় কোটিতে।

করোনার চিকিৎসায় নাওয়া-খাওয়া ভুলেছিলেন চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। ২৪ ঘণ্টাই পড়েছিলেন হাসপাতালে বা কাছাকাছি কোনও জায়গায়। তাঁদের খাবারের জন্য কোভিড ফান্ড থেকে খরচের ব্যবস্থা করেছিল রাজ্য সরকার। ২ মাস ২০ দিনে ওই খাবারের বিল এসেছে দেড় কোটি টাকা। গত ৭ মে করোনার চিকিৎসায় মেডিক্যাল কলেজের নাম ঘোষণা হয়। ২৭ জুলাই অধ্যক্ষের পদে যোগ দেন মঞ্জু বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, তারপরই বিল নিয়ে শুরু হয় বিতর্ক। পরে অবশ্য বিলে অনুমোদন দেওয়া হয়।

যাঁরা হাসপাতালে ২৪ ঘন্টা থাকবেন, শুধুমাত্র তাঁদের জন্য খাবারের বন্দোবস্ত করা হয়েছিল। তদন্তে জানা গিয়েছে, সকালের ডিউটি বা নাইট শিফটে আসা ডাক্তার-নার্সরাও দুপুরের খাবারে ভাগ বসিয়েছেন। প্রতিদিন হাসপাতালে ৪০ থেকে ৪৫০ প্লেট খাবার সরবরাহ করেছে দায়িত্বপ্রাপ্ত বেসরকারি সংস্থা। ওই সংস্থা এসএসকেএম হাসপাতালের দায়িত্বেও রয়েছে। দেড় কোটির বিল দেখে মাথায় হাত স্বাস্থ্যকর্তাদের। তাঁরা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, এবার থেকে একশোর বেশি প্লেট সরবরাহ করা হবে না। আর প্রতি প্লেটের দাম রাখা হবে ১৬০ থেকে ১৭০ টাকার মধ্যে। 

আরও পড়ুন- করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ, ১ মাস ডাক্তার-নার্সদের পড়ে থাকতে হবে হাসপাতালেই!