করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ, ১ মাস ডাক্তার-নার্সদের পড়ে থাকতে হবে হাসপাতালেই!

সরকারি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, জেলার মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ও সংশ্লিষ্ট জেলার স্বাস্থ্য আধিকারিকরা আলোচনা করে হাসপাতালের চিকিৎসা সংক্রান্ত বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন।

Updated By: Sep 29, 2020, 06:24 PM IST
করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ, ১ মাস ডাক্তার-নার্সদের পড়ে থাকতে হবে হাসপাতালেই!

নিজস্ব প্রতিবেদন: রাজ্যে বাড়ছে করোনার দাপট। এই পরিস্থিতিতে আগামী ১ মাস চ্যালেঞ্জ নিয়েই কোভিডের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামল রাজ্য সরকার। স্বাস্থ্য ভবন বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়েছে, জেলার কোভিড হাসপাতালগুলিতে ২৪ ঘণ্টা যাতে চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্য কর্মীরা থাকেন, তার ব্যবস্থা করতে হবে। থাকতে হবে প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা। দরকারে হাসপাতালের কাছাকাছি চিকিৎসক, নার্সদের থাকার বন্দোবস্ত করতে হবে। 

সরকারি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, জেলার মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ও সংশ্লিষ্ট জেলার স্বাস্থ্য আধিকারিকরা আলোচনা করে হাসপাতালের চিকিৎসা সংক্রান্ত বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন। কোন চিকিৎসক, নার্স কখন থাকবেন, কীভাবে পরিষেবা দেওয়া হবে, তা ঠিক করবেন তাঁরাই। আগামী এক মাসের জন্য ডাক্তার, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের কাজের রুটিন (ডিউটি রস্টার) ঠিক করতে হবে। চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা করবে সংশ্লিষ্ট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। চিকিৎসা পরিষেবা যাতে ২৪ ঘণ্টা সচল থাকে তা সুনিশ্চিত করতেই স্বাস্থ্যভবনের এই সিদ্ধান্ত। 

সারি ওয়ার্ডে (Severe Acute Respiratory Illness) চিকিৎসাধীন গুরুতর অবস্থার রোগীদের র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট বাধ্যতামূলক। দিতে হবে দ্রুত রিপোর্ট। প্রতিটি জেলার স্বাস্থ্য আধিকারিকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, সংশ্লিষ্ট মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে কাজে নামাতে হবে র‍্যাপিড রেসপন্স টিমকে। 

ওই বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, আগামী একমাস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই ক'টা দিন জেলার মেডিকেল কলেজগুলির অধ্যক্ষ এবং সিএমওএইচ-কে নজরদারি করতে হবে। নিয়মিত রিপোর্ট পাঠাতে হবে স্বাস্থ্যভবনে।  

আরও পড়ুন- VOIP কল নিয়ে প্রতারণা, কেন্দ্রীয় সরকারের কোটি কোটি টাকা রাজস্ব ক্ষতি! কলকাতায় ধৃত ২