বিধায়ক খুনে আগাম জামিনের আর্জি জানিয়ে হাইকোর্টে মুকুল

মুকুল রায়ের দাবি, “ঘটনাস্থলে সেদিন আমি ছিলামই না। কীভাবে আমার নাম তাতে জড়িয়ে গেল?  এটা চক্রান্ত। আমি সত্যজিতকে চিনতাম। কিন্তু আমার সঙ্গে এই ঘটনার কোনও যোগ নেই।”

Updated: Feb 12, 2019, 01:12 PM IST
বিধায়ক খুনে আগাম জামিনের আর্জি জানিয়ে হাইকোর্টে মুকুল

নিজস্ব প্রতিবেদন:  আগাম জামিনের আর্জি মুকুল রায়ের। কৃষ্ণগঞ্জের  বিধায়ক সত্যজিত্ বিশ্বাস  খুনের মামলায় আগাম জামিনের আবেদন জানান তিনি। বৃহস্পতিবার  শুনানির সম্ভাবনা বিচারপতি জয়মাল্য বাগচীর ও বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় ডিভিশন বেঞ্চে।

মুকুল রায়ের দাবি, “ঘটনাস্থলে সেদিন আমি ছিলামই না। কীভাবে আমার নাম তাতে জড়িয়ে গেল?  এটা চক্রান্ত। আমি সত্যজিতকে চিনতাম। কিন্তু আমার সঙ্গে এই ঘটনার কোনও যোগ নেই।”

প্রসঙ্গত, গত শনিবার নদিয়ার হাঁসখালিতে সরস্বতী পুজোর প্যান্ডেল উদ্বোধন করতে গিয়েছিলেন কৃষ্ণগঞ্জের বিধায়ক  সত্যজিত্ বিশ্বাস। সেখানেই গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর।  ঘটনায় কেটে গিয়েছে দুদিন। তবে এখনও অধরা সূত্র।

আরও পড়ুন: বিধায়ক খুনে ওসি ও দেহরক্ষীর বিরুদ্ধে বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

সোমবার সত্যজিতের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সত্যজিতের  স্ত্রী ও দেড় বছরের সন্তানের দায়িত্ব নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।  সেদিন নাম না করে মুকুল রায়কে খোঁচা দিয়ে অভিষেক বলেন, “ঘাড় ধরে প্রত্যেক অভিযুক্তকে জেলে ঢোকাব।  দিল্লির নেতাদের পাজামা ধরে রেখেও পার পাবেন না কেউ। প্রত্যেক অভিযুক্তকে শাস্তি পেতে হবে।”

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মন্তব্যের পরদিনই মঙ্গলবার সকালে আগাম আর্জির আবেদন জানিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন মুকুল রায়। এই মামলার শুনানি বৃহস্পতিবার।