প্রধানমন্ত্রীকে কোমরে দড়ি বেঁধে ঘোরাবেন বলেছিলেন, এবার কি নিজের কোমরে দড়ি পরার ভয়ে দিল্লি ছুটলেন: সুজন

লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে নরেন্দ্র মোদীকে কোমরে দড়ি বেঁধে ঘোরানোর হুমকি দিয়েছিলেন মমতা। 

Updated By: Sep 17, 2019, 04:09 PM IST
প্রধানমন্ত্রীকে কোমরে দড়ি  বেঁধে ঘোরাবেন বলেছিলেন, এবার কি নিজের কোমরে দড়ি পরার ভয়ে দিল্লি ছুটলেন: সুজন

নিজস্ব প্রতিবেদন:   বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রীকে কোমরে দড়ি বেঁধে ঘোরাবেন। এখন নিজের কোমরে দড়ি পরার জোগাড় হয়েছে, তাই দিল্লি ছুটেছেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিল্লি সফরকে কটাক্ষ সুজন চক্রবর্তীর।

 

এদিন বিধানসভায় তিনি বলেন, “সেটিং কীভাবে করতে হয়, তা খুব ভালো ভাবেই জানেন ওঁরা। প্রধানমন্ত্রীকে কোমরে দড়ি দিয়ে নিয়ে আসবে বলেছিলেন। এখন নিজের কোমরে দড়ি পরার সময় এসেছে। তাই সঙ্কটকালে মোদীর দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি। রাজীব কুমারের যা হওয়ার হয়েছে। এবার পিসি ভাইপো যাতে বেঁচে যায়, তা কী তিনি যাচ্ছেন?”
রাজীব কুমারের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “খারাপ লাগছে একজন ভালো অফিসারের কী অবস্থা হল এখন! যে অপরাধী ধরবে, সেই কিনা এখন দৌড়চ্ছে।” এরপর প্রশাসনিক উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের উদ্দেশে সুজন বলেন, “যাঁরা ওঁর কথা মেনে চলেন, তাঁরা এখনই সতর্ক হয়ে যান।”

'রুটিন কাজ'-এ দিল্লি গেলেন মমতা, বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের কী বললেন মুখ্যমন্ত্রী?

প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে নরেন্দ্র মোদীকে কোমরে দড়ি বেঁধে ঘোরানোর হুমকি দিয়েছিলেন মমতা। এমনকী, প্রধানমন্ত্রীকে নানা সময়ে ‘দাঙ্গাবাজ’ বলেও আক্রমণ শানিয়েছেন। এরই বদলা নিতেই কি মোদী সিবিআই-কে হাতিয়ার করেছেন? এই নিয়েও তর্কের অভাব হয়নি বহুদিন।

মঙ্গলবার ইন্ডিগোর উড়ান ৪১৭-এ দিল্লি রওনা দেন মমতা।  মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রী বিমানবন্দরে জানান, 'আমি তো গোটা বছর কলকাতাতেই থাকি। দিল্লি খুব কম যাই। দিল্লিতে সংসদ, রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী সবাই রয়েছেন তাই কখনও কখনও রাজ্যের কাজে যেতে হয়। এটা রুটিন কাজ।'