Rajya Sabha Poll: মমতাই বিজেপি বিরোধী শক্তির মুখ, রাজ্যসভায় তৃণমূল সাংসদ নির্বাচিত হয়ে সরব সুস্মিতা

সাংসদ নির্বাচিত হয়ে সুস্মিতা দেব বলেন, সংসদে আমাকে অসমের পাশাপাশি বাংলার সমস্যার কথাও বলতে হবে। এর পাশাপাশি ত্রিপুরা সহ গোটা উত্তরপূর্ব ভারতের জন্য়ও আওয়াজ তুলতে হবে

Updated By: Sep 27, 2021, 04:24 PM IST
Rajya Sabha Poll: মমতাই বিজেপি বিরোধী শক্তির মুখ, রাজ্যসভায় তৃণমূল সাংসদ নির্বাচিত হয়ে সরব সুস্মিতা

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রাজ্যসভার সাংসদ নির্বাচিত হলেন সুস্মিতা দেব। তৃণমূলের টিকিটে সংসদের উচ্চকক্ষে স্থান পেলেন সুস্মিতা।

সাংসদ নির্বাচিত হয়ে সুস্মিতা দেব বলেন, ভাবতেই পারিনি অসমে রাজনীতি করব আর বাংলা থেকে সাংসদ নির্বাচিত হব। এটা সম্ভব হয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য। কিন্তু আমার একটা সমস্যা রয়েছে। সংসদে আমাকে অসমের পাশাপাশি বাংলার সমস্যার কথাও বলতে হবে। এর পাশাপাশি ত্রিপুরা সহ গোটা উত্তরপূর্ব ভারতের জন্য়ও আওয়াজ তুলতে হবে। গত অধিবেশনেও দেখেছি তৃণমূল কংগ্রেস সহ বিরোধীরা কীভাবে মোদী সরকারের ফ্যাসিজিমের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিল। ফলে আগামী দিনে রাজ্যসভাতে তৃণমূলের যে নির্দেশ থাকবে তার উপরে ভিত্তি করেই রাজ্যসভায় কৃষক, ছোট ব্যবসায়ী, খেটেখাওয়া মানুষের স্বার্থে আন্দোলন করব।

আরও পড়ুন-Ayushman Bharat Digital Mission: সবার জন্য হেলথ আইডি, ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী Modi-র

উল্লেখ্য, ভবানীপুর উপনির্বাচনে মনোযোগ দেওয়ার জন্য রাজ্যসভার প্রতিদ্বন্দ্বিতায় প্রার্থী দেয়নি বিজেপি। ফলে একপ্রকার বিনা লড়াইয়েই জয়ী হন প্রাক্তন কংগ্রেস নেতা সন্তোষ মোহন দেবের কন্যা। গত সোমবার মনোনয়ন জমা দেন সুস্মিতা। আজ ছিল প্রার্থীদের মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন।

গোয়া কংগ্রেসের নেতা ও প্রাক্তন  মুখ্যমন্ত্রী লুইজিনহো ফেলেইরো কংগ্রেস থেকে পদত্য়াগ করেছেন। জল্পনা রয়েছে তিনি যোগ দিতে পারেন তৃণমূলে। তিনি আবার অসমে কংগ্রেসের পর্যবেক্ষক ছিলেন। এনিয়ে সুস্মিতা দেব বলেন, গোটা দেশেই বিজেপি বিরোধী একটা শক্তি তৈরি হচ্ছে। মানুষ চাইছে বিজেপির একটি বিকল্প। সেই শক্তি তৈরি করতে যে নেতৃত্বের প্রয়োজন সেক্ষেত্রে এগিয়ে রয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। এটা কোনওভাবেই অস্বীকার করা যাবে না।

আরও পড়ুন- By-Poll: জিতলে চেয়ারটা Priyanka-কে ছেড়ে দেব! প্রচারে শেষলগ্নে বড় ঘোষণা Suvendu-র   

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব সম্পর্কে সুস্মিতা দেব বলেন, উনি যতবার মুখ খুলবেন ততবার তৃণমূলের সুবিধে হবে। ত্রিপুরার মানুষের উপরে এরকম এক অযোগ্য মুখ্যমন্ত্রীকে চাপিয়ে দেওয়ার জন্য একমাত্র নরেন্দ্র মোদীই দায়ী। বিপ্লব দেবের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার কথা ভাবছে তৃণমূল কংগ্রেস। 

Zee 24 Ghanta App : দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)