বিজেপি ১৪, বিএসপি ২; আমেঠিতেও খাতা খুলতে পারল না কংগ্রেস

ক্ষমতায় আসার পর প্রথম বড় পরীক্ষাতেই সসম্মানে উত্তীর্ণ হলেন যোগী আদিত্যনাথ। উত্তরপ্রদেশ পৌরনিগম নির্বাচনে ১৬টির মধ্যে ১৪টিতেই জয় হাসিল করেছে বিজেপি। অন্যদিকে, ঘুরে দাঁড়িয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে বহুজন সমাজ পার্টি। এদিকে, পৌরনিগম নির্বাচনে খাতাই খুলতে পারেনি কংগ্রেস ও সমাজবাদী পার্টি।

Updated By: Dec 1, 2017, 06:29 PM IST
বিজেপি ১৪, বিএসপি ২; আমেঠিতেও খাতা খুলতে পারল না কংগ্রেস

নিজস্ব প্রতিবেদন : ক্ষমতায় আসার পর প্রথম বড় পরীক্ষাতেই সসম্মানে উত্তীর্ণ হলেন যোগী আদিত্যনাথ। উত্তরপ্রদেশ পৌরনিগম নির্বাচনে ১৬টির মধ্যে ১৪টিতেই জয় হাসিল করেছে বিজেপি। অন্যদিকে, ঘুরে দাঁড়িয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে বহুজন সমাজ পার্টি। এদিকে, পৌরনিগম নির্বাচনে খাতাই খুলতে পারেনি কংগ্রেস ও সমাজবাদী পার্টি।

ময়দান প্রস্তুত, অপেক্ষা শুধু অভিষেকের। গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনের মধ্যেই কংগ্রেস সভাপতি পদে অভিষেক হওয়ার কথা রাহুল গান্ধীর। কিন্তু তার আগে শুক্রবার উত্তরপ্রদেশ পৌর নির্বাচনের ফলাফল নিঃসন্দেহে কংগ্রেস তথা রাহুল গান্ধীর কাছে বড় ধাক্কা। গান্ধী পরিবারের খাসতালুক বলে পরিচিত আমেঠিতেও পৌর নিগমের দখল নিয়েছে যোগী বাহিনী। আমেঠি পৌর নিগমে কংগ্রেসের হার নিয়ে রাহুলকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি যোগী। যোগী বলেন, "যারা গুজরাট জয়ের কথা বলছেন, তারা আমেঠিতে খাতাই খুলতে পারলেন না।"

পৌর নির্বাচনে দলের এই সাফল্যে বিজেপি প্রার্থীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। ধন্যবাদ জানিয়েছে রাজ্যের সাড়ে ৪ কোটি ভোটারকে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দূরদর্শিতা ও বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের রণকৌশলেই এই সাফল্য মিলেছে বলে উল্লেখ করেছেন যোগী। একইসঙ্গে তিনি বলেন, এই জয় গুজরাট নির্বাচনের আগে কংগ্রেসকে চোখে আঙুল দিয়ে বাস্তবটা দেখিয়ে দিল।

পৌর নির্বাচন জয়ে যোগী আদিত্যনাথকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। এক টুইটবার্তায় মোদী লেখেন, "দেশে আরও একবার উন্নয়নের জয় হল।" অন্যদিকে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেন, উত্তরপ্রদেশ পৌর নির্বাচনে এই জয় জিএসটির প্রতি মানুষের সমর্থনকে তুলে ধরছে।

আরও পড়ুন, মথুরা পুরনিগমের নির্বাচনের লাকি ড্র-এ জয়ী বিজেপি প্রার্থী

১৬টি পৌর নিগমের মধ্যে বিজেপি বোর্ড গড়বে বারাণসী, গোরক্ষপুর, গাজিয়াবাদ, বরৈলি, আগরা, ফিরোজাবাদ, অযোধ্যা, মথুরা, লখনউ, কানপুর, সাহারানপুর, ঝাঁসি, এলাহাবাদ ও মোরদাবাদে। অন্যদিকে বিএসপি বোর্ড গড়বে আলিগড় ও মেরঠে।