জিভে গভীর ক্ষত; দুটি পা-ই অসাড়, ১৪ দিনের লড়াই শেষ উত্তরপ্রদেশের গণধর্ষিতা দলিত তরুণীর

গত ১৪ সেপ্টেম্বর মায়ের সঙ্গে মাঠে গিয়েছিল ওই তরুণী। তখনই তাকে অপহরণ করে নির্মম অত্যাচার চালায় অভিযুক্তরা। ইতিমধ্য়েই ৪ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিস

Edited By: সিকান্দর আবু জ়াফর | Updated By: Sep 29, 2020, 04:09 PM IST
জিভে গভীর ক্ষত; দুটি পা-ই অসাড়, ১৪ দিনের লড়াই শেষ উত্তরপ্রদেশের গণধর্ষিতা দলিত তরুণীর
প্রতীকী ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদন: টানা ১৪ দিনের লড়াই শেষ। দিল্লির সফদর জং হাসপাতালে মৃত্যু হল গণধর্ষণের শিকার উত্তরপ্রদেশের হাথরাসের দলিত তরুণীর। সোমবারই তাকে আলিগড়ের জওহরলাল নেহরু মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে দিল্লি আনা হয়।

আরও পড়ুন-মুম্বই ইন্ডিয়ানস ও আরসিবি-র ম্যাচ চলাকালীন পর্দাফাঁস 'বড়সড়' বেটিং চক্রের

পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে গণধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে খুন করার চেষ্টা হয় ১৯ বছরের ওই তরুণীকে। সেসময় তার জিভের একাধিক জায়গা কেটে যায়। তার দুটি পা ও একটি হাতে কোনও সাড় ছিল না বলে জানিয়েছে আলিগড়ের হাসপাতাল। তার পরেও ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে দেওয়া বয়ানে ধর্ষকদের  নাম বলে গিয়েছে সে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ৩০৭ ও ৩৭৬ডি ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১৪ সেপ্টেম্বর মায়ের সঙ্গে মাঠে গিয়েছিল ওই তরুণী। তখনই তাকে অপহরণ করে নির্মম অত্যাচার চালায় অভিযুক্তরা। ইতিমধ্য়েই ৪ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। ওই চারজনই উচ্চবর্ণের।

এদিকে, ওই নারকীয় ঘটনার প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছে দলিত সংগন ভীম আর্মি। সংগঠনের প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদ রবিবার রাতেই আলিগড়ে হাসপাতালে পৌংছে নির্যাতিতার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করেন। তাঁর দাবি, যোগী রাজ্যে আইন শৃঙ্খলা বলে কিছু নেই। নির্যাতিতার পরিবারকে ১ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

আরও পড়ুন-VOIP কল নিয়ে প্রতারণা, কেন্দ্রীয় সরকারের কোটি কোটি টাকা রাজস্ব ক্ষতি! কলকাতায় ধৃত ২

দিল্লির নারী ও শিশু কল্যাণ দফতরের মন্ত্রী রাজেন্দ্রপাল গৌতম নিশান করেছেন যোগীর পুলিসকে। তাঁর দাবি, ঘটনার ৯ দিন পর অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে পুলিস। শুধু তাই নয় এখন নির্যাতিতা তরুণীর পারিবারকে খুনের হুমকি দেওয়া হচ্ছে।