সন্তানকে খুঁজে দেওয়ার কাতর আর্তি বন্দুকবাজের হামলায় আক্রান্ত ফরহজের বাবার

নিউ জিল্যান্ডে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের তরফে জানানো হয়েছে, নিউ জিল্যান্ডে জোড়া হামলায় ৯ জন ভারতীয় বংশোদ্ভূত-সহ নাগরিক নিখোঁজ

Updated By: Mar 16, 2019, 12:27 PM IST
সন্তানকে খুঁজে দেওয়ার কাতর আর্তি বন্দুকবাজের হামলায় আক্রান্ত ফরহজের বাবার
ছবি- এএনআই

নিজস্ব প্রতিবেদন: পঞ্চাশের বেশি এখনও নিখোঁজ। কোনও খবর নেই হায়দরাবাদের ফরহজ এহসানের। শুধুই তিনিই নন জানা যাচ্ছে ভারতীয় বংশোদ্ভূত ও নাগরিক এমন ৯জনের খোঁজ এখনও পর্যন্ত পাওয়া যাচ্ছে না। গতকাল থেকে উত্কন্ঠায় দিন গুনছেন তাঁদের পরিবার-পরিজনেরা। উল্লেখ্য, শুক্রবার নিউ জিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুই মসজিদে আততায়ীর গুলিতে নিহত হন কমপক্ষে ৪৯ জন।

ফরহজের বাবা মহম্মদ সৈয়দউদ্দিন বলেন, “শুক্রবার প্রার্থনা জানাতে মসজিদে যায় আমার ছেলে। এখনও পর্যন্ত তার কোনও খবর নেই। শুনতে  পাচ্ছি ১৭ জন নিখোঁজ। সরকারের কাছে আবেদন করছি আমার সন্তানকে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করুক।” ওই হামলায় আক্রান্ত আরও এক হায়দরাবাদির দাদা খুরশিদ জাহাঙ্গির বলেন, “ভাইয়ের সম্পর্কে সঠিক খবর জানতে পারছি না। সরকার দ্রুত ভিসার ব্যবস্থা করলে নিউ জিল্যান্ডে গিয়ে ভাইয়ের সন্ধান নিতে পারি।” তাঁর ভাই আহমেদ জাহাঙ্গির এ দিনের হামলায় গুরুতর জখম হয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে।

আরও পড়ুন- নিউ জিল্যান্ডের মসজিদে হামলার পর থেকে নিখোঁজ ৯ ভারতীয়

হামলায় আক্রান্ত আহমেদ জাহাঙ্গির।

নিউ জিল্যান্ডে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের তরফে জানানো হয়েছে, নিউ জিল্যান্ডে জোড়া হামলায় ৯ জন ভারতীয় বংশোদ্ভূত-সহ নাগরিক নিখোঁজ। বিদেশমন্ত্রকের তরফে চালু করা হয়েছে হেল্পলাইন। এআইএমআইএম-র প্রধান আসাউদ্দিন ওয়েসি দাবি করেন, ২ ভারতীয় মৃত্যু হয়েছে। একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। গতকাল দুটি মসজিদে নির্বিচারে গুলি চালায় ২৮ বছর বয়সী ব্রেনটন ট্যারেন্ট নামে এক অস্ট্রেলীয় নাগরিক। ওই হামলায় নিহত হন ৪৯ জন। প্রায় ৫০ বেশি গুরুতর জখম হন। ব্রেন্টন-সহ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে নিউ জিল্যান্ডের পুলিস।