বিয়ের আগেই পাত্র-পাত্রীকে জানাতে হবে তাদের ধর্ম, অসমে আসছে নতুন আইন

নতুন আইন সম্পর্কে হিমন্ত বিশ্বশর্মা বলেন, কোনও বৈবাহিক সম্পর্ক স্থাপনের আগে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে প্রত্যেকটি বিষয়ে স্বচ্ছতা যদি না থাকে তাহলে সেই বিয়ে হওয়া উচিত নয়।

Updated By: Nov 30, 2020, 11:49 PM IST
বিয়ের আগেই পাত্র-পাত্রীকে জানাতে হবে তাদের ধর্ম, অসমে আসছে নতুন আইন

নিজস্ব প্রতিবেদন: উত্তর প্রদেশের 'লাভ জিহাদ' বিরোধী অধ্যাদেশের পর এবার আরও কড়া আইন আনার কথা ভাবছে অসম সরকার।

বিয়ের আগে পাত্র ও পাত্রীকে জানাতে হবে তাদের ধর্ম ও তাদের আয়ের উত্স। রাজ্যে বিয়ের আইন সংস্কার করে এমনটাই ব্যবস্থা করা হচ্ছে অসমে।

আরও পড়ুন-হাতে ঢোল, নীল-সাদা জামায় মুখে 'হরে কৃষ্ণ হরে রাম' নাম শুভেন্দুর

রাজ্যে নতুন বিয়ের আইন নিয়ে অর্থমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা সংবাদমাধ্যমে জানান, রাজ্যের নতুন বিয়ের আইন অনেকটাই উত্তর প্রদেশে ও মধ্য প্রদেশের মত হবে। এতে রাজ্যের মহিলারা আরও উপকৃত হবেন।

নতুন আইন সম্পর্কে হিমন্ত বিশ্বশর্মা বলেন, কোনও বৈবাহিক সম্পর্ক স্থাপনের আগে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে প্রত্যেকটি বিষয়ে স্বচ্ছতা যদি না থাকে তাহলে সেই বিয়ে হওয়া উচিত নয়। এক্ষেত্রে প্রত্যেকের জানিয়ে দেওয়া উচিত তার ধর্ম কী, কী পেশার সঙ্গে যুক্ত, আয় কত।

আরও পড়ুন-কোনও কোনও ক্ষেত্রে আমাদের করোনা ভ্যাকসিন ১০০ শতাংশ কার্যকর, দাবি Moderna-র 

বিশ্বশর্মার দাবি, বহুক্ষেত্রে মহিলারা বিয়ের পর জানতে পারেন তাঁর স্বামী কোনও অবৈধ কাজকর্ম করেন। শুধুমাত্র লভ জিহাদ রুখতেই নয়, কেউ যাতে তার পরিচয়, আয়, না লুকতে পারে তার জন্য আইন সংস্কার করা হচ্ছে। বিয়ের একমাস আগেই ওইসব তথ্য সরকারকে দিতে হবে।