প্রতিবাদের জের, আইএএস অফিসারকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত পুর্নর্বিবেচনায় অখিলেশ

সমগ্র উত্তর প্রদেশ জুড়ে জুড়ে তীব্র প্রতিবাদ। তার জেরেই  গ্রেটার নয়ডার সাবডিভিশনাল অফিসার দূর্গা শক্তি নাগপালের বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত পুর্নর্বিবেচনার সিদ্ধান্ত নি্লেন অখিলেশ যাদব।

Updated By: Jul 29, 2013, 12:23 PM IST

সমগ্র উত্তর প্রদেশ জুড়ে জুড়ে তীব্র প্রতিবাদ। তার জেরেই  গ্রেটার নয়ডার সাবডিভিশনাল অফিসার দূর্গা শক্তি নাগপালের বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত পুর্নর্বিবেচনার সিদ্ধান্ত নি্লেন অখিলেশ যাদব।
বালি মাফিয়াদের সঙ্গে বিরোধীতা। তার জেরে বহিষ্কৃত হতে হয় উত্তরপ্রদেশের এক আইএএস অফিসারকে।
মাত্র ছ`মাস আগে গ্রেটার নয়ডার সাব-ডিভিসনাল ম্যাজিস্ট্রেটের পদে বদলি হয়ে উত্তরপ্রদেশে আসেন দূর্গা শক্তি নাগপাল। ২০০৯ ব্যাচের আইএএস দূর্গা গত কয়েক সপ্তাহ ধরে নয়ডার একাধিক অবৈধ খনি গুলো বন্ধের বিশেষ ব্যবস্থা নেন। যমুনার তীর থেকে তোলা বালি ভর্তি ৩০০টি ট্রাক আটক করেন তিনি। মাফিয়াদের হুমকি অগ্রাহ্য করে পশ্চিম উত্তরপ্রদেশে যমুনা ও হিন্দন নদীর তীরে অবৈধ কাজকর্ম রোধে বিশেষ বাহিনীও তৈরি করেন তিনি।
গত সপ্তাহের শনিবার গ্রেটার নয়ডাতে সরকারি জমির উপর বেআইনি ভাবে গড়ে ওঠা একটি মসজিদের নির্মান ভেঙে ফেলার নির্দেশ দেন দূর্গা শক্তি নাগপাল। এরপরেই তাঁকে বহিষ্কৃত করার সিদ্ধান্ত নেয় উত্তর প্রদেশ রাজ্য সরকার। সরকারের পক্ষ থেকে যুক্তি দেওয়া হয় রামজানের মাসে মসজিদ নির্মাণ আটকে দিলে সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে।
উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব নিজে জানিয়েছেন গ্রামাঞ্চলে  সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার জন্য বাধ্য হয়েই তাঁকে এই সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। অন্যদিকে, কিন্তু রাজনৈতিক মহলের দাবি মাফিয়াদের বিরোধীতা করায় সরিয়ে দেওয়া হল দূর্গা শক্তি নাগপালকে। বিরোধীরাও এই ঘটনায় তীব্র ভাষায় মুলায়ম পুত্র আক্রমণ করেছেন। দাবি করেছেন সরকার বালি মাফিয়াদের আড়াল করার চেষ্টা করছে।
ক্ষমতায় আসার পর থেকেই একের পর এক বিতর্কিত সিদ্ধান্তের জন্য সমালোচিত হয়েছেন অখিলেশ যাদব। তাঁর বিরুদ্ধে প্রাকনির্বাচন প্রতিশ্রুতি পালন না করারও অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় ফের আর এক বার স্ক্যানারের তলায় চলে গেল অখিলেশ যাদবের রাজপাট।