এখনও ভয়াবহ রূপ দেখেনি দেশ! সম্ভব হয়েছে করোনা রোখা, দাবি আইসিএমআরের

 "মৃত্যুর হারও অন্যান্য দেশের থেকে কম ভারতে।" এমনই জানিয়েছেন আইসিএমআরের বিজ্ঞানী নিবেদিতা গুপ্তা।

Updated By: Jun 3, 2020, 12:16 PM IST
এখনও ভয়াবহ রূপ দেখেনি দেশ! সম্ভব হয়েছে করোনা রোখা, দাবি আইসিএমআরের

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভারতে অনেকাংশেই সম্ভব হয়েছে করোনা রোখা। করোনা মোকাবিলায় অন্যান্য দেশগুলির থেকে এগিয়ে ভারত। সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত ও কার্যকরী পদক্ষেপের মাধ্যমে করোনার ভয়াবহ রূপ দেখতে হয়নি ভারতকে। এমনই প্রতিক্রিয়া মিলল ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চের (ICMR) পক্ষ থেকে।
 করোনা বিধ্বস্ত অন্য যে কোনও দেশের থেকে ভালো অবস্থা ভারতের। এবং "মৃত্যুর হারও অন্যান্য দেশের থেকে কম ভারতে।" এমনই জানিয়েছেন আইসিএমআরের বিজ্ঞানী নিবেদিতা গুপ্তা। গোষ্ঠী সংক্রমণের বিষয়ে প্রশ্ন করলে, নিবেদিতা বলেছেন,"গোষ্ঠী সংক্রমণ শব্দটা ব্যবহারের আগে এটি গুরুত্বপূর্ণ যে অন্যান্য দেশগুলির তুলনায় আমরা অধিক সংক্রমণ রুখতে পেরেছি।"

আরও পড়ুন:আনারসে বিস্ফোরক ভরে খাইয়েছিল মানুষ, দিনের পর দিন যন্ত্রণায় ছটফট করেছিল সেই গর্ভবতী হাতি

ভারতের এ পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্ত ২ লক্ষ ছাড়িয়েছে। মৃতের সংখ্যাতেও উৎস চিনকে টপকে গিয়েছে ভারত। রোজ রেকর্ড আক্রান্তের খবর মিলছে। বিধ্বস্ত মহারাষ্ট্রের ধারেভি বস্তিতেই আক্রান্তের সংখ্যা বিপুল। সেই অবস্থায় লকডাউনের ফলে ঠিক কতটা সম্ভব হলো করোনা রোখা!
 তবে বিশেষজ্ঞরা অবশ্য বলছেন লকডাউন না হলে আরও বাড়তো আক্রান্তর সংখ্যা। তাহলে কি করোনা রুখতে সাহায্য করলো লকডাউন। কিন্তু দেশে ২৪ ঘন্টায় সর্বোচ্চ আক্রান্তের হদিশ মিলেছে আজই। অর্থাৎ দেশ যখন ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে চাইছে তখনই আক্রান্ত সর্বোচ্চ। তাহলে ভবিষ্যত কী আরও অন্ধকার! প্রশ্নচিহ্ন থেকেই যাচ্ছে।