লড়াই কঠিন ঠান্ডার সঙ্গেও, লাদাখে জওয়ানের থাকার বিশেষ আবাসনের ব্যবস্থা করল সেনাবাহিনী

টানা ৬ মাস ঠান্ডা থাকে লাদাখে। এর জন্য গত জুলাই মাস থেকে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে সেনাবাহিনী

Updated By: Nov 18, 2020, 05:43 PM IST
লড়াই কঠিন ঠান্ডার সঙ্গেও, লাদাখে জওয়ানের থাকার বিশেষ আবাসনের ব্যবস্থা করল সেনাবাহিনী

নিজস্ব  প্রতিবেদন: শীতে চিনা সেনার মোকাবিলা এখন ভারতীয় সেনা জওয়ানদের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ। লাদাখের হাড়কাঁপানে ঠান্ডায় পঞ্চাশ হাজার সেনাকে সুস্থ রাখতে প্রয়োজন উপযুক্ত পোশাক, জ্বালানি, রসদ, বাসস্থান। তার ব্যবস্থা করে ফেলল সেনাবাহিনী।

আরও পড়ুন-দেখুন তো ইরান আক্রমণ করা যায় কিনা: উপদেষ্টাদের কাছে জানতে চান ট্রাম্প!

নভেম্বরের শেষ থেকে প্রবল তুষারপাত শুরু হবে লাদাখে। কখনও কখনও তা ৪০ ফুট পর্যন্ত উঁচু হয়ে যায়। তাপমাত্র চলে যায় হিমাঙ্কের ৪০ ডিগ্রি  নীচে। এরকম এক পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে জওয়ানদের থাকার ব্যবস্থা করে ফেলল ভারতীয় সেনাবাহিনী। 

টানা ৬ মাস ঠান্ডা থাকে লাদাখে। এর জন্য গত জুলাই মাস থেকে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে সেনাবাহিনী। কারণ চিনের সঙ্গে শুরু হওয়া এই উত্তেজনা সহজে কাটার নয়। জওয়ানদের জন্য বিদেশ থেকে আনা হয়েছে বিশেষ তাঁবু ও পোশাক যা হিমাঙ্কের ৪০ ডিগ্রি নীচেও সুস্থ রাখতে পারে জওয়ানদের।  লাদাখের বিরাট এলাকা জুড়ে তৈরি করা হয়েছে পাইপের মতো ঘর ও গাড়ি রাখার জায়গা। ওইসব ঘর খুলে নিয়ে দ্রুত এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় সরানো যায়।

আরও পড়ুন-কাল থেকে দায়িত্ব বন্টন, আজই জেলায় জেলায় পঞ্চপাণ্ডব

এখনও লাদাখের বিভিন্ন এলাকায় তাপমাত্র মাইনাস ২০ ডিগ্রি থেকে মাইনাস ২৫ ডিগ্রি। এরপর তা আরও কমবে। সেনা জওয়ানদের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে আনা হয়েছে ১১০০০ বিশেষ পোশাক। লাদাখের বিভিন্ন জায়গায় মজুত করা হয়েছে কেরসিনের হিটার, তাঁবু, খাবার, ওষুধ সহ অন্যান্য সামগ্রী। লাদাখের উঁচু এলাকায় যেসব সেনা মোতায়েন থাকবেন তাঁদের জন্য ব্যবস্থা করা হয়েছে বিশেষ হিটেড তাঁবু। এমনটাই সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়েছে সেনা বাহিনীর তরফে ।