এনকাউন্টার নয় গুলি বিনিময়েই মৃত্যু, সাংবাদিক বৈঠক করে জানাল তেলেঙ্গানা পুলিস

তেলেঙ্গানা পুলিসের দাবি, প্রথমে পুলিসকে উদ্দেশ্য করে গুলি চালানো হয়। পালটা পুলিস গুলি চালালে মৃত্যু হয় তাদের। দুই অভিযুক্তের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে পুলিসের পিস্তল। ‘

Updated By: Dec 6, 2019, 03:59 PM IST
এনকাউন্টার নয় গুলি বিনিময়েই মৃত্যু, সাংবাদিক বৈঠক করে জানাল তেলেঙ্গানা পুলিস
ছবি-টুইটার

নিজস্ব প্রতিবেদন: পুলিসের উপর গুলি চালানোর পরই পালটা গুলি চালানো হয়। তাতেই মৃত্যু হয়েছে হায়দরাবাদ কাণ্ডের ৪ অভিযুক্তের। সাংবাদিক বৈঠক করে জানাল তেলেঙ্গানা পুলিস। সাইবারাবাদের পুলিস কমিশনার ভিসি সজ্জনারের দাবি, ঘটনার পুনর্নিমাণের জন্য অভিযুক্তদের নিয়ে যাওয়া হয়েছিল পশু চিকিত্সকে পুড়িয়ে মারার জায়গায়। সেখানে পুলিসের হাত থেকে পালানোর চেষ্টা করে। লাঠি, ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায়। এরপর পুলিস কর্মীকে ঘায়েল করে পিস্তল নিয়ে পালায় অভিযুক্তরা।

তেলেঙ্গানা পুলিসের দাবি, প্রথমে পুলিসকে উদ্দেশ্য করে গুলি চালানো হয়। পালটা পুলিস গুলি চালালে মৃত্যু হয় তাদের। দুই অভিযুক্তের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে পুলিসের পিস্তল। ‘এনকাউন্টার ম্যান’ বলে পরিচিত সজ্জনার জানান, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এর আগেও গুরুতর অভিযোগ রয়েছে। তবে, এই ঘটনাকে এনকাউন্টার বলতে নারাজ পুলিস কমিশনার সজ্জনার।

আরও পড়ুন- নির্ভয়াকাণ্ডে দোষীর প্রাণভিক্ষা খারিজ করতে রাষ্ট্রপতিকে সুপারিশ কেন্দ্রের

অন্ধ্র প্রদেশ, কর্নাটক, তেলেঙ্গানায় ধর্ষণ করে পুড়িয়ে মারা ঘটনায় এদের হাত ছিল বলে পুলিসের অনুমান। বিভিন্ন সূত্রে সে প্রমাণও মিলেছে বলে দাবি পুলিসের। জখম পুলিস কর্মীদের হাসপাতেল ভর্তি করা হয়েছে। তাঁদের বুলেটের ক্ষত নেই বলে জানানো হয়েছে। এ ঘটনার কথা পরে তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাওকে জানানো হয় বলে জানান সজ্জনার।