জবাব দেওয়া হয় বলেই মন্দিরে আর সন্ত্রাসবাদী হামলা হয় না, বারাণসীতে দাবি মোদীর

শুক্রবার মোদীর মনোনয়ন কর্মসূচিতেও থাকবেন বহু হেভিওয়েট। 

Updated: Apr 25, 2019, 11:11 PM IST
জবাব দেওয়া হয় বলেই মন্দিরে আর সন্ত্রাসবাদী হামলা হয় না, বারাণসীতে দাবি মোদীর

নিজস্ব প্রতিবেদন: নিজের সংসদীয় এলাকায় পৌঁছে সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে ফের সুর চড়ালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশের বারাণসীতে দাঁড়িয়ে তিনি দাবি করলেন, তাঁর সরকার সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে জবাব দেয়, তাই এখন আর মন্দিরে মন্দিরে সন্ত্রাসবাদী হানা হয় না।

২০১৪ সালে বারাণসী ও বরোদা লোকসভা আসন থেকে নির্বাচনে লড়েছিলেন নরেন্দ্র মোদী। ভোটে জিতে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর বরোদা আসনটি তিনি ছেড়ে দেন। এবার তিনি শুধু বারাণসীর প্রার্থী।

আরও পড়ুন: রামমন্দিরের জন্য রুপোর ইট রয়েছে, হলফনামায় জানালেন সাধ্বী প্রজ্ঞার

শুক্রবার ওই কেন্দ্র থেকে মোদী মনোনয়ন জমা দেবেন। তার আগে বৃহস্পতিবার বারাণসী পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী। রোড শোয়ে অংশ নিয়েছেন। বারাণসীর দশাশ্বমেধ ঘাটে গঙ্গা আরতিও করেছেন। তার পর এক জনসভায় উপস্থিত হন তিনি।

সেখানেই সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে সুর চড়িয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি জানিয়েছেন, গত পাঁচ বছরে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে বরাবর কড়া অবস্থান নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাই কোথাও বিস্ফোরণ হয়নি। কাশীর কোনও মন্দির সন্ত্রাসবাদের শিকার হয়নি। সন্ত্রাসবাদকে দেশের সব জায়গা থেকে উপড়ে ফেলা হয়েছে।

আরও পড়ুন: পাঁচ বছর পর ফের অযোধ্যায় যাচ্ছেন নরেন্দ্র মোদী

মোদীর দাবি, এখন সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ শুধু জম্মু-কাশ্মীরের কয়েকটি জেলার মধ্যে সীমাবদ্ধ। কিন্তু তাও বন্ধ করে দেওয়া হবে।

একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী গতবার বারাণসী থেকে তাঁকে জেতানোয় ভোটারদের ধন্যবাদ দিয়েছেন। একই সঙ্গে বারাণসীতে কী কী কাজ হয়েছে, তার খতিয়ানও তুলে ধরেন তিনি।

আরও পড়ুন: রাজনৈতিক ফায়দা তুলতেই সুপ্রিম কোর্টের মন্তব্যের অপব্যবহার করছেন রাহুল, অভিযোগ বিজেপি নেতার

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার মোদীর কর্মসূচিতে বিপুল জনসমাগম হয়েছিল। তাছাড়া বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ-সহ দলের একাধিক শীর্ষ নেতা উপস্থিত ছিলেন।

শুক্রবার মোদীর মনোনয়ন কর্মসূচিতেও থাকবেন বহু হেভিওয়েট। সেই দলে রয়েছেন দেশের একাধিক বিজেপি শাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। বিজেপির শীর্ষস্তরের বহু নেতা। তাছাড়া থাকছেন এনডিএ-তে বিজেপির শরিক দলের হেভিওয়েট নেতারা। সেই তালিকায় বিহারের মুখ্যমন্ত্রী তথা জেডিইউ নেতা নীতিশ কুমার, শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরের নাম রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।