খালি পেটই বাধায় যুদ্ধ, বিশ্ব খাদ্য প্রকল্প পেল নোবেল শান্তি পুরস্কার

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেন থেকে উত্তর কোরিয়া- কোটি কোটি মানুষের পেট ভরিয়েছে বিশ্ব খাদ্য প্রকল্প। 

Updated By: Oct 9, 2020, 04:55 PM IST
খালি পেটই বাধায় যুদ্ধ, বিশ্ব খাদ্য প্রকল্প পেল নোবেল শান্তি পুরস্কার

নিজস্ব প্রতিবেদন: খিদের বিরুদ্ধে লড়াই পেল নোবেল শান্তি পুরস্কার (Nobel Peace Prize 2020)। যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেন থেকে উত্তর কোরিয়া- কোটি কোটি মানুষের পেট ভরিয়েছে বিশ্ব খাদ্য প্রকল্প (World Food Programme)। চলতি বছর ওই প্রকল্পকে শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত করল নোবেল কমিটি।  

নোবেল কমিটির চেয়ারওম্যান বেরিট রেইস অ্যান্ডারসন বলেন,''যুদ্ধ  ও সংঘাতের অস্ত্র হিসেবে খিদেকে ব্যবহার করা হচ্ছে। সে জন্য শান্তি প্রতিষ্ঠায় অন্যতম ভূমিকা নিয়েছে বিশ্ব খাদ্য প্রকল্প।'' কেন বিশ্ব খাদ্য প্রকল্পকে বাছা হল, তাও স্পষ্ট করেছেন চেয়ারওম্যান। বলেছেন,''খিদের জ্বালায় মরছে কোটি কোটি অভূক্ত মানুষ। সে দিকে যাতে গোটা বিশ্বের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য চলতি বছর বিশ্ব খাদ্য প্রকল্পকে বেছে নিল নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি।''

১৯৬১ সালে গঠিত হয়েছিল রাষ্ট্রসঙ্ঘের শাখা সংস্থা বিশ্ব খাদ্য প্রকল্প। উট, হাতি বা হেলিকপ্টারের মাধ্যমে অভূক্তদের কাছে অন্ন পৌঁছে দেয় তারা। গতবছর  ৮৮টি দেশের ৯.৭ কোটি মানুষকে ১৫০ কোটি রেশন দেওয়া হয়েছে। ২০৩০ সালের মধ্যে বিশ্ব থেকে ক্ষুধা দূরীকরণের লক্ষ্য রাষ্ট্রসঙ্ঘের। তবে বর্তমান প্রক্রিয়া চলমান থাকলে তা অসম্ভব। মহিলা ও শিশুরা রয়েছেন ঝুঁকিপূর্ণ পরিস্থিতিতে।

বিশ্ব খাদ্য প্রকল্প জানিয়েছে, ক্ষুধার জন্য যুদ্ধ লাগে। আবার সংঘাতে বাড়ে অভূক্তের সংখ্যা। শান্তিপূর্ণ দেশগুলির চেয়ে তিন গুণ অপুষ্টিতে ভোগেন যুদ্ধবিধ্বস্ত এলাকার মানুষ। গত ২১ সেপ্টেম্বর বিশ্ব খাদ্য প্রকল্পের এক্সিকিউটিভ ডিরেকটর ডেভিড বিসলে মন্তব্য করেন,''এখানে কোনও বিকল্প নেই। সংঘাত বন্ধ না করতে পারলে ক্ষুধা নিবারণ সম্ভব নয়।''

আরও পড়ুন-