চুক্তিভঙ্গের অভিযোগে কোয়েসের বিরুদ্ধে ফিফার দ্বারস্থ ইষ্টবেঙ্গল কোচ!

কোচ মারিও রিভেরা সরাসরি ফিফার দ্বারস্থ হওয়ার চিন্তাভাবনা করলেও ফুটবলাররা চাইছেন ফিফাতে যাওয়ার আগে বিষয়টি ফুটবল প্লেয়ার্স অ্যাসোশিয়েসন অফ ইন্ডিয়া অর্থাৎ FPAI-কে জানাতে।

Updated By: May 8, 2020, 02:29 PM IST
 চুক্তিভঙ্গের অভিযোগে কোয়েসের বিরুদ্ধে ফিফার দ্বারস্থ ইষ্টবেঙ্গল কোচ!

নিজস্ব প্রতিবেদন: মে মাসে বেতন দেবে না- চুক্তিভঙ্গ করেছে ইস্টবেঙ্গলের ইনভেস্টর কোয়েস। এই অভিযোগে ফিফার দ্বারস্থ হচ্ছেন গত মরশুমে ইষ্টবেঙ্গলের কোচ মারিও রিভেরা সহ একাধিক ইষ্টবেঙ্গল ফুটবলার। সূত্রের খবর ইষ্টবেঙ্গলের স্প্যানিশ কোচ মারিও রিভেরা ইষ্টবেঙ্গলের টিম ম্যানেজমেন্টকে একটা লম্বা চিঠিও দিয়েছেন। সদুত্তর না পেলে লাল-হলুদ কোচ এই বিষয়টি নিয়ে ফিফার দ্বারস্থ হওয়ার হুমকিও দিয়েছেন।

কোচের সঙ্গে হাত মিলিয়ে কোয়েসের বিরুদ্ধে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ামক সংস্থার কাছে চুক্তিভঙ্গের অভিযোগ জানাতে চলেছেন লাল-হলুদের বেশ কিছু ফুটবলার। ইষ্টবেঙ্গলের ফুটবলার এবং কোচের দাবি, ৩১মে পর্যন্ত তাদের চুক্তি ছিল। কিন্তু সেই চুক্তি ভঙ্গ করে ৩০ এপ্রিল চুক্তি শেষ হওয়ার চিঠি ই-মেল মারফত ফুটবলার এবং কোচের কাছে পাঠিয়ে দেন লাল-হলুদের বিনিয়োগকারী সংস্থা কোয়েসের অন্যতম কর্তা সঞ্জিত সেন। সেইসঙ্গে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যেহেতু ৩০ এপ্রিল চুক্তি শেষ হয়ে গেছে তাই মে মাসের বেতন দেওয়া হবে না।

কোচ মারিও রিভেরা সরাসরি ফিফার দ্বারস্থ হওয়ার চিন্তাভাবনা করলেও ফুটবলাররা চাইছেন ফিফাতে যাওয়ার আগে বিষয়টি ফুটবল প্লেয়ার্স অ্যাসোশিয়েসন অফ ইন্ডিয়া অর্থাৎ FPAI-কে জানাতে। সেইমতো নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তিন ফুটবলার FPAI-র কাছে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন। শুধু অভিযোগ জানানোই নয়, কোয়েসের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপের হুমকিও তাঁরা দিয়েছেন।

 

কোয়েস সূত্রে পাওয়া খবর, কোচ বা ফুটবলারদের চোখরাঙানিকে তারা গুরুত্ব দিচ্ছে না। কারণ করোনা ভাইরাসের জেরে যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে তাতে ফিফাই নাকি ফুটবলার, কোচ, সাপোর্ট স্টাফদের বেতন কম নিতে বলেছে। সেটাকেই হাতিয়ার করে এগোতে চাইছে কোয়েস। এপ্রিলের প্রথম দিকে করোনা ভাইরাসের জন্য জরুরিকালীন পরিস্থিতির অজুহাত দেখিয়ে নির্ধারিত সময়ের একমাস আগেই ইষ্টবেঙ্গলের ফুটবলার এবং কোচের সঙ্গে চুক্তি ভেঙে দেওয়ার কথা ঘোষনা করেছিল কোয়েস। সেইসময় লালহলুদ কর্তারা এই ব্যাপারে তীব্র আপত্তি জানিয়েছিলেন। কোয়েসের সঙ্গে বৈঠকও করেছিলেন। কিন্তু ইষ্টবেঙ্গলের বিনিয়োগকারী সংস্থা কোয়েসের কর্তৃপক্ষ তাদের কথা মানতে চান নি।

 

আরও পড়ুন - করোনার আঁতুরঘর উহানে ফিরছে টেনিস ...