সৌরভ-জয়ের কুলিং অফ বাঁচাতে আসরে নামল বিসিসিআই

আসলে গত ডিসেম্বরে বোর্ডের AGM-এ সৌরভ-জয়দের ওপর আস্থা রেখে কীভাবে কুলিং অফ থেকে ওদের বাঁচানো যায় সেই নিয়ে পরিকল্পনা করেন বোর্ড সদস্যরা। 

Updated By: May 23, 2020, 12:33 PM IST
সৌরভ-জয়ের কুলিং অফ বাঁচাতে আসরে নামল বিসিসিআই

নিজস্ব প্রতিবেদন: লকডাউনের মাঝেই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডে প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি এবং সচিব জয় শাহের কুলিং অফ পিরিয়ড নিয়ে জোর জল্পনা। লোধা কমিশনের  কুলিং অফ নিয়ম থেকে বাঁচতে ইতিমধ্যেই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন বোর্ড সচিব জয় শাহ। সূত্রের খবর, বোর্ডের কোষাধ্যক্ষ অরুন ধুমল এপেক্স কোর্টে সৌরভ গাঙ্গুলি ও জয় শাহের বিসিসিআই-এ মেয়াদ বাড়ানোর জন্য এপেক্স কোর্টে পিটিশন দাখিল করেছেন।

অরুন ধুমল জানান, "২০১৯ সালের ডিসেম্বরে বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভায় কুলিং অফ পিরিয়ড নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বোর্ডের সভাপতি এবং সচিব পদে দুটো টার্মে কাজ করলে তাঁকে বাধ্যতামূলক কুলিং অফে যেতে হবে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডে সৌরভ এবং জয়কে প্রয়োজন। ওরা তো বিসিসিআইয়ের দায়িত্ব নিয়ে বেশিদিন কাজই করতে পারল না। "

আসলে গত ডিসেম্বরে বোর্ডের AGM-এ সৌরভ-জয়দের ওপর আস্থা রেখে কীভাবে কুলিং অফ থেকে ওদের বাঁচানো যায় সেই নিয়ে পরিকল্পনা করেন বোর্ড সদস্যরা।  শুধু কুলিং অফ থামানো নয়, চলতি কমিটিকে টানা তিন বছরের জন্য কাজ করতে দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হোক এমনটাও চান তাঁরা।  কিন্তু লোধা কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী,বোর্ড বা রাজ্য স্তরের কোনও কর্তা ছ বছরের বেশি পদাধিকারী থাকতে পারবেন না। ছয় বছর হয়ে গেলে তাঁকে তিন বছরের জন্য কুলিং অফে যেতে হবে। সিএবি এবং বোর্ডের পদে থাকায় সব মিলিয়ে জুলাইয়ে সৌরভের ছয় বছরের মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে। এবছরেই ছয় বছরের মেয়াদ শেষ হচ্ছে বোর্ড সচিব জয় শাহের।   

আরও পড়ুন - বিধ্বংসী আমফানে বিপর্যস্ত বাংলা, স্পেনে উদ্বিগ্ন কিবুর প্রার্থনা কলকাতার জন্য