close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

রান আউট করে বুঝতেই পারলেন না পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ!

৪৩তম ওভারে মহম্মদ হাসনাইনের করা দ্বিতীয় বলটি মিড উইকেটে খেলে রান নিতে গিয়েছিলেন কুরান।

Updated: May 19, 2019, 04:41 PM IST
রান আউট করে বুঝতেই পারলেন না পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ!

নিজস্ব প্রতিবেদন : স্টাম্প আউট করলেন। কিন্তু নিজেই বুঝতে পারলেন না, ব্যাটসম্যান আউট কি না! ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যান টম কুরানকে রান-আউট করলেন পাকিস্তানে অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। কিন্তু নিজেই বুঝতে পারলেন না। তাই আম্পায়ারের কাছে আউটের আপিলও করলেন না। ৪৩তম ওভারে টম কারেনকে রান আউট করেছিলেন সরফরাজ। ওই সময় কুরানের আউট কিন্তু ম্যাচের ফল পাল্টে দিতে পারত।

আরও পড়ুন-  বাংলাদেশের পাশে দাঁড়িয়ে পাকিস্তানি সমর্থককে একহাত নিলেন ভারতের আকাশ চোপড়া

নটিংহামে সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে পাকিস্তান করেছিল ৩৪০ রান। তিন বল বাকি থাকতে ম্যাচ জিতে নেয় ইংল্যান্ড। টম কারেনের ৩০ বলে ৩১ রান ইংল্যান্ডের জয়ে বড় ভূমিকা রেখেছিল। সপ্তম উইকেটে স্টোকস-কারেনের ৬১ রানের জুটি ইংল্যান্ডকে জয়ের কাছাকাছি পৌঁছে দিয়েছিল। কারেন আউট হওয়ার পর ১৬ বলে ২২ রান দরকার ছিল ইংল্যান্ডের। হাতে তখনও চার উইকেট। সরফরাজ আপিল করলে মাত্র ৬ রানেই আউট হতে পারতেন কুরান। ম্যাচের ফলও পাল্টে যেতে পারত। সরফরাজ খেয়ালই করলেন না যে তিনি কুরানকে আউট করে ফেলেছেন।

আরও পড়ুন-  চারপাশের এত চাপ কী করে সামলান, বলিউড অভিনেত্রীর ছোট্ট ছেলেকে জানিয়ে গেলেন ধোনি

৪৩তম ওভারে মহম্মদ হাসনাইনের করা দ্বিতীয় বলটি মিড উইকেটে খেলে রান নিতে গিয়েছিলেন কুরান। নন স্ট্রাইকে থাকা বেন স্টোকস রান নিতে চাননি। কুরানকে ফিরতে হয়। ফিল্ডারের থ্রো স্টাম্পে লাগলেও রান আউট হওয়া থেকে বেঁচে যান কুরান। বল সরাসরি স্টাম্পে লেগে ফাঁকা জায়গায় চলে যায়। এর পরই রান নিতে ছোটেন কুরান। আর তখনই দু-রান নিতে গিয়ে সরফরাজ তাঁকে আউট করেছিলেন। রান-আউটের প্রসঙ্গ ম্যাচ শেষে উঠেছিল। সরফরাজ বলে যান, ''ভেবেছিলাম বেলস দুটি আগেই পড়ে গিয়েছিল। ভেবেছিলাম তৃতীয় আম্পায়ার রিপ্লেতে দেখে থাকলে মাঠের আম্পায়ারকে বলবে। আমার আন্দাজ ভুল ছিল।''