বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজে বহির্বিভাগে বিশৃঙ্খলা, পদপিষ্ট বৃদ্ধা

সরকারি হাসপাতালের উপরই ভরসা করে থাকে আশেপাশের বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষ। রোগী দেখতে গিয়ে হিমশিম খেতে হয় চিকিত্সকদের। প্রতিদিনই ভোর হতে লাইন পড়ে আউটডোরের বাইরে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দীর্ঘ হতে থাকে লাইন। 

Updated By: Mar 5, 2018, 01:55 PM IST
 বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজে বহির্বিভাগে বিশৃঙ্খলা, পদপিষ্ট বৃদ্ধা

নিজস্ব প্রতিবেদন:  সরকারি হাসপাতালের বহির্বিভাগে চরম বিশৃঙ্খলা। চিকিত্‍সা করাতে এসে পদপিষ্ট হলেন এক বৃদ্ধা। বাঁকুড়া সম্মিলনি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ঘটনা।

সরকারি হাসপাতালের উপরই ভরসা করে থাকে আশেপাশের বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষ। রোগী দেখতে গিয়ে হিমশিম খেতে হয় চিকিত্সকদের। প্রতিদিনই ভোর হতে লাইন পড়ে আউটডোরের বাইরে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দীর্ঘ হতে থাকে লাইন। আর মাঝে যদি ছুটি দিন পড়ে যায়, তারপরের দিনের অবস্থা হয় তথৈবচ। প্রতি সপ্তাহেই সোমবারের ভিড় থাকে চোখে পড়ার মতো। কিন্তু এই সোমবারের চিত্রটা যেন ভিড়ের আগের সব রেকর্ডকে ভেঙে চুরমার করল।

আরও পড়ুন: ‘বিমান’ উড়বেই, ‘রেড রোডে’ সম্ভবত নেই গৌতম, দীপক, মদন

সোমবার সকাল থেকে হাসপাতালের আউটডোরের সামনে ভিড় করেন রোগী ও তাঁদের আত্মীয়রা। দরজা খুলতেই শুরু হয় হুড়োহুড়ি। কে আগে ভিতরে ঢুকবেন, তা নিয়েই শুরু হয় রোগীদের মধ্যে ধাক্কাধাক্কি।

আরও পড়ুন: পুকুরে পাড়েই সন্ধ্যার পর মিলছে তার পায়ের ছাপ! এবার আতঙ্ক মধুপুরে

সকলেই যখন ধাক্কাধাক্কিতে ব্যস্ত, চাপ সামলাতে না পেরে ভিড়ের চাপে মাটিতে পড়ে যান বছর সত্তরের এক বৃদ্ধা। অথচ, সেদিকে ভ্রূক্ষেপই ছিল না কারোর। তাঁর ওপর দিয়েই অনেকে চলে যান। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়েই গোঙাতে থাকেন ওই বৃদ্ধা। কিছুক্ষণ পর বিষয়টি সকলের নজরে আসে। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে উদ্ধার করে চিকিত্‍সার জন্য ভিতরে নিয়ে যাওয়া হয়।

আরও পড়ুন: আচমকা ঘূর্ণাবর্ত থেকে বসন্তে বৃষ্টি!

কিন্তু এই ঘটনার ফের একবার প্রকাশ্যে এল সরকারি হাসপাতালের বিপন্নতা। কেন আউটডোরের ভিড় সামলানোর জন্য কোনও কর্মীকে রাখা হল না, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে।