বাড়ির সামনেই গুলিবিদ্ধ বিদায়ী মহিলা কাউন্সিলর, এখনও গুলি আটকে হাড়ে!

হাসপাতাল সূত্রের খবর, আজ অপারেশনের মাধ্যমে গুলি বার করা হবে। গুলিটি কাউন্সিলরের পায়ের হাড়ে আটকে আছে।

Reported By: সৌমেন ভট্টাচার্য্য | Updated By: Jul 5, 2020, 09:53 AM IST
বাড়ির সামনেই গুলিবিদ্ধ বিদায়ী মহিলা কাউন্সিলর, এখনও গুলি আটকে হাড়ে!
নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন:  বাড়ির সামনেই গুলিবিদ্ধ বিদায়ী মহিলা কাউন্সিলর। শনিবার রাতে বাড়ির সামনের রাস্তাতেই উত্তর বারাকপুর পুরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী মহিলা কাউন্সিলর চম্পা দাসকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা।

পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, বিদায়ী কাউন্সিলরের পায়ে গুলি লেগেছে। প্রথমে তাঁকে বারাকপুরের বিএনবসু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে গুলি না বেরোনোয় ইএম বাইপাসের ধারে বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। কিন্তু রবিবার সকাল পর্যন্ত কাউন্সিলরের শরীর থেকে গুলি বের করা সম্ভব হয়নি।

হাসপাতাল সূত্রের খবর, আজ অপারেশনের মাধ্যমে গুলি বার করা হবে। গুলিটি কাউন্সিলরের পায়ের হাড়ে আটকে আছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বাড়ির গেটের সামনেই চার দুষ্কৃতি মটরবাইকে গিয়ে গুলি করে পালায়। দুষ্কৃতিদের প্রথম গুলিটি চম্পা দাসের কান ঘেষে বেড়িয়ে গেলেও পরের গুলিটি বা পায়ে লাগে।

গুলির শব্দ শুনে স্থানীয়রা ছুটে আসতেই দুষ্কৃতিরা পালিয়ে যায়। তৃনমুলের নেতা উত্তম দাসের অভিযোগ, বিজেপি এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত। কিন্তু এই অভিযোগ মিথ্যা বলে উড়িয়ে দিয়ে দিয়েছেন বিজেপির নোয়াপাড়ার বিধায়ক সুনিল সিং। তিনি বলেন,  "তোলাবাজি নিয়ে ঝামেলার জেরে নিজেদের মধ্যে ঝামেলা, আর তার জেড়েই এই গুলির ঘটনা।"

আরও পড়ুন: পেটের ভিতর প্রতিটি অঙ্গে পচন, মৃত্যুর মুখ থেকে বিরল রোগে আক্রান্ত রোগীকে ফেরালেন চিকিৎসক

কে বা কারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত, তা এখনই স্পষ্ট নয়। বিদায়ী কাউন্সিলর ছাড়া এই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি। ফলে দুষ্কৃতীদের চিহ্নিতকরণে সমস্যা হচ্ছে। রাজনৈতিক কারণেই আক্রমণ হয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করছে পুলিস।