Bhatpara: মাত্র ২০ হাজার টাকার জন্যই মাথায় গুলি নাকি পেছনে অন্য রহস্য!

পরিবার সূত্রে খবর, লকডাউনের সময়ে সোনু সাউ নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা ধার নেন ব্যাগ কারাখানার কর্মী সিকান্দার দাস

Updated By: Sep 12, 2021, 05:02 PM IST
Bhatpara: মাত্র ২০ হাজার টাকার জন্যই মাথায় গুলি নাকি পেছনে অন্য রহস্য!

নিজস্ব প্রতিবেদন: শনিবার সন্ধেয় ভাটপাড়ার ৩৫ নম্বর ওয়ার্ডে সিকান্দার দাসের খুনের পেছনে কি টাকা ছাড়াও অন্য কোনও কারণ! সব সম্ভাবনা খতিয়ে দেখছে পুলিস। প্রায়ই এই ধরনের ঘটনা ভাটপাড়ায় ঘটছে কীভাবে তাও ভাবাচ্ছে পুলিসকে।

আরও পড়ুন-Bypoll: শক্তি দাও, মাহেশ জগন্নাথ মন্দিরে পুজো দিয়ে মমতার জন্য আশীর্বাদ চাইলেন মদন

রবিবার সিকান্দার দাসের বাড়িতে আসেন ভাটপাড়া পুরসভার পৌর প্রশাসক গোপাল রাউত। তিনি পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন। পাশাপাশি, ঘটনার তদন্তে পুলিসকে সব রকম সাহায্যের কথাও বলেন। ঘটনার পর কয়েক ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও এখনও আতঙ্ক পরিবারে। সিকান্দারের অবর্তমানে তাদের সংসার চলবে কীভাবে তা বেবেই আকাশ ভেঙে পড়েছে সিকান্দারের স্ত্রী- মায়ের মাথায়।

কী হয়েছিল শনিবার রাতে?

পরিবার সূত্রে খবর, লকডাউনের সময়ে সোনু সাউ নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা ধার নেন ব্যাগ কারাখানার কর্মী সিকান্দার দাস। কিন্তু ওই কারখানা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সেই আয়ের রাস্তা বন্ধ হয়ে যায় তার। এর মধ্যেই জুট মিলে কাজ করে কোনওক্রমে সংসার চালাচ্ছিল সিকান্দার। এদিকে টাকার তাগাদা শুরু করে সোনু।

আরও পড়ুন-Uttar Pradesh: Yogi সরকারের কর্মকাণ্ডের প্রচারে মা উড়ালপুলের ছবি! 'কৃতিত্ব চুরি' বলছে তৃণমূল    

শনিবার বিকেলে রাস্তায় সিকান্দারকে ধরে সোনু। টাকা নিয়ে দুজনের মধ্যে বচসা হয়। সিকান্দারকে মারধরও করা হয়। তখনকার মতো বিষয়টি মিটে যায়। রাত সাড়ে নটা নাগাদ সিকান্দারের বাড়িতে হাজির হয় সোনু ও তার সঙ্গী মদন সাউ। স্কুটি থেকে নেমে সিকান্দারের বাড়িতে এসে টাকার জন্য চিত্কার চেঁচামেচি শুরু করে। খুনের ভয় দেখানে হয় সিকান্দারের মাকে। এর মধ্যেই সিকান্দার এসে বলে, ওই ২০ হাজার টাকা তার পক্ষে দেওয়া সম্ভব নয়। দিন পনেরোর সময় দিতে হবে। ওই কথা শুনেই পিস্তল বের করে সিকান্দারকে লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে উধাও হয়ে যায় সোনু ও তার সঙ্গী। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় সিকান্দারের।

এদিকে, এনিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর। বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং গতকাল একটি ছবি দেখিয়ে দাবি করেছেন, সোনু জগদ্দলের বিধায়কের ঘনিষ্ঠ। তাঁর সঙ্গে মিটিংয়ে সোনুকে দেখা গিয়েছে। অন্যদিকে, জগদ্দলের বিধায়কের দাবি, সোনুকে তিনি চেনেন না। ফাঁসানোর জন্য সোনুর সঙ্গে তাঁর নাম জড়ানো হচ্ছে।

 (Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)