Canning: ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে পুলিস হেফাজত, ছাড়া পেয়েই গৃহবধূর পরিবারের ৬ জনকে কোপাল যুবক

গুরুতর আহত অবস্থায় ৬ জনকে উদ্ধার করে স্থানীয় খুঁচিতলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যায় প্রতিবেশীরা

Updated By: Aug 26, 2021, 07:41 PM IST
Canning: ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে পুলিস হেফাজত, ছাড়া পেয়েই গৃহবধূর পরিবারের ৬ জনকে কোপাল যুবক
ছবি- গৃহবধূর শাশুড়ি

নিজস্ব প্রতিবেদন: গত ১৪ অগাস্ট জীবনতলা থানার নাগরতলা গ্রামের এক গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করে গ্রামেরই যুবক জাহাঙ্গীর সেখ। গৃহবধূ চিত্কার করতেই সে পালিয়ে যায়। এনিয়ে থানায় অভিযোগ করেন গৃহবধূর স্বামী আলমগীর সেখ। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিস গ্রেফতার করে জাহাঙ্গীরকে।

আরও পড়ুন-CBI: কাঁকুড়গাছিতে নিহত বিজেপি কর্মীর বাড়িতে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা, মা-দাদার বয়ান রেকর্ড

এদিকে, ২৪ অগাস্ট জামিন পেয়ে সুযোগ বুঝে হামলা চালায় ওই গৃহবধূর পরিবারের উপরে। ঘটনায় গুরুতর জখম ৩ মহিলা সহ মোট ৬ জন। বর্তমানে তাঁরা হাসপাতালে চিকিত্সাধীন।

স্থানীয় সূত্রে খবর, দলবল নিয়ে জাহাঙ্গীর ঝাঁপিয়ে পড়ে ওই ভ্যান চালক আলমগীর সেখের পরিবারের উপর। লোহার রড, লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয়। পাশাপাশি ধারাল ছুরি দিয়েও পরিবারের লোকজনের উপরে হামলা চলানো হয়। ঘটনায় গুরুতর জখম হয় ওই ভ্যান চালক-সহ পরিবারের লালবানু সেখ,আলিম সেখ,সেলিম সেখ,সাবিনা সেখ,তুহিনা পারভীন’রা। প্রতিবেশীরা ঘটনাস্থলে দৌড়ে আসলে সাঙ্গপাঙ্গো নিয়ে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত যুবক।

আরও পড়ুন-Mamata: ডাক্তারদের অভাব পূরণ করতে প্র্যাকটিশনার সিস্টার, নার্সদের পদোন্নতির বড় ঘোষণা 

গুরুতর আহত অবস্থায় ৬ জনকে উদ্ধার করে স্থানীয় খুঁচিতলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যায় প্রতিবেশীরা। সেখানে আলমগীর ও লালবানুর অবস্থা সংকটজনক হওয়ায় বুধবার রাতেই ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয় দুজনকে। সেখানে বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তারা। ঘটনার বিষয়ে জীবনতলা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন আক্রান্ত পরিবারের সদস্যরা।ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে জীবন থানা পুলিস। পাশাপাশি অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে।

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)