তথ্য নিয়ে বিভ্রান্তি, দেড় ঘণ্টার ব্যবধানে রাজ্যে মৃতের সংখ্য়া কমে দাঁড়াল ৩

ছয়টা নাগাদ রাজ্যের মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা তড়িঘড়ি সাংবাদিক বৈঠক ডেকে জানিয়ে দিলেন, ৭ জন নয়, মৃত্যুর সংখ্য়া ৩

Reported By: সুতপা সেন | Updated By: Apr 2, 2020, 07:57 PM IST
তথ্য নিয়ে বিভ্রান্তি, দেড় ঘণ্টার ব্যবধানে রাজ্যে মৃতের সংখ্য়া কমে দাঁড়াল ৩
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিকেল সাড়ে ৪টে। রাজ্য সরকারের বিশেষজ্ঞ চিকিত্সকদের কমিটি মেডিক্যাল বুলেটিন প্রকাশ করে জানাল, এই মুহূর্তে করোনায় রাজ্যে মৃত্য়ু হয়েছে ৭ জনের। আক্রান্ত ৫৩ জন। কিন্তু সেই রিপোর্ট মাত্র দেড় ঘণ্টার মধ্যে বদলে গেল!

ছয়টা নাগাদ রাজ্যের মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা তড়িঘড়ি সাংবাদিক বৈঠক ডেকে জানিয়ে দিলেন, ৭ জন নয়, মৃত্যুর সংখ্য়া ৩। রাজীব সিনহা দাবি করেন, বাকি ৪ জনের মৃত্যু যে করোনায় হয়েছে প্রমাণ হয়নি। ওনারা অন্যান্য অসুখ নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন। তবে, তাঁরা যে করোনা পজেটিভ এ কথা জানান মুখ্য সচিব। আক্রান্তের সংখ্যাও অনেকটাই কম। এই মুহূর্তে ৩৪ জন করোনা আক্রান্তের চিকিত্সা চলছে বলে জানালেন তিনি।

আরও পড়ুন- ঠাঁই হয়নি বাড়িতে, নৌকায় কোয়ারান্টিনে অসহায় বৃদ্ধ

এ দিন বিকেলে রাজ্য় সরকারের পক্ষে চিকিত্সক অভিজিত্ চৌধুরী জানিয়েছিলেন, করোনা উপসর্গ নিয়ে প্রথম দফায় ১৮ জন যে ভর্তি হয়েছিলেন, তাঁদের মধ্যে ৯ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। সম্ভবত আগামিকালের মধ্যে তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হবে। বুধবার থেকে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের স্কুল অব ট্রপিক্য়াল মেডিসিনে শুরু হয়েছে করোনা পরীক্ষা। গতকাল নিয়ে ১২ টি পরীক্ষা হয়, যার মধ্যে সবকটি নেগেটিভ এসেছে।

উল্লেখ্য়, গতকাল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছিলেন রাজ্যে করোনা আক্রান্তের মৃত্য়ুর সংখ্য়া ৩। যা নিয়ে শুরু হয় তথ্য বিভ্রান্তি। তথ্য লুকানোর অভিযোগ তোলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।