'রেস্তরাঁয় খাওয়া থেকে সিনেমা দেখা, প্রেম করতে খরচা অনেক,' পুলিস সেজে তোলাবাজি যুগলের!

"প্রেম করতে গেলে অনেক খরচ। রেস্তোরাঁয় খাওয়া থেকে পার্কে ঘোরা, সিনেমা দেখার জন্য টাকার প্রয়োজন। সেই টাকা জোগাড়ের জন্যই নাটকের পোশাক ভাড়া করেছিলাম।"

Updated: Nov 19, 2019, 05:16 PM IST
'রেস্তরাঁয় খাওয়া থেকে সিনেমা দেখা, প্রেম করতে খরচা অনেক,' পুলিস সেজে তোলাবাজি যুগলের!

নিজস্ব প্রতিবেদন : প্রেম করতে গেলে অনেক 'খরচ'! প্রেম করার 'খরচ' তুলতে হবে! সেই 'খরচ' তোলার জন্য ভুয়ো পুলিস সেজে প্রতারণা চালিয়ে যাচ্ছিল এক যুগল। অবশেষে পুলিসের জালে ধরা পড়েছে দুই কীর্তিমান-ই। পুলিস সেজে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে প্রেমিক ও প্রেমিকাকে। ধৃতদের নাম সায়নী ঘোষ ও দীপ নাটিক। চমকে দেওয়ার মতো এই ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার বারুইপুরে।

পুলিশ সূত্রে খবর, এলাকার মানুষ দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ করছিল যে সায়নী নিজেকে বারুইপুর মহিলা থানার পুলিস কর্মী ও দীপ নিজেকে বারুইপুর থানার সিভিক ভলেন্টিয়ার হিসেবে পরিচয় দিয়ে তোলাবাজি করছে। এই অভিযোগ পেয়ে বারুইপুর মহিলা থানার পুলিস কর্মীরা ঘটনার তদন্তে নামে। এরপর সোমবার সন্ধ্যায় মদারাট এলাকা থেকে দুজনকেই গ্রেফতার করে বারুইপুর থানার পুলিস। ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে পুলিসের একটি পোশাক ও পুলিস লেখা একটি স্কুটি।

ধৃতদের জেরা করে পুলিস জানতে পেরেছে, বেশ কিছুদিন ধরে সম্পর্কে রয়েছে সায়নী ও দীপ। পুলিসি জেরার মুখে নিজেদের দোষ কবুল করেছে যুগল। প্রেম করার খরচ তোলার জন্য তাঁরা এই প্রতারণার ছক কষেছিলেন বলে জানিয়েছেন দুজনে। যুগলের বক্তব্য, "প্রেম করতে গেলে অনেক খরচ। রেস্তোরাঁয় খাওয়া থেকে পার্কে ঘোরা, সিনেমা দেখার জন্য টাকার প্রয়োজন। সেই টাকা জোগাড়ের জন্যই নাটকের পোশাক ভাড়া করেছিলাম।"

আরও পড়ুন, ইউনিফর্ম না পড়ে আসায় পড়ুয়াদের 'নগ্ন' করে ক্লাস করাল স্কুল কর্তৃপক্ষ!

আরও খবর পড়তে ডাউনলোড করুন ZEE NEWS অ্যাপ। আর সিলেক্ট করুন ZEE ২৪ ঘণ্টা। ক্লিক করুন এখানে