'দম্পতি' পরিচয়ে ভাড়া নেয় ঘর, হাওড়ার হোটেলে উদ্ধার যুগলের অচৈতন্য দেহ!

 ওই যুগল আদৌ দম্পতি কিনা? কেন কী কারণে পূর্ব মেদিনীপুর থেকে এসে হাওড়ায় হোটেল ভাড়া নিল? কীভাবে এঘটনা ঘটল? সব নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে।

Updated By: Nov 21, 2020, 07:02 PM IST
'দম্পতি' পরিচয়ে ভাড়া নেয় ঘর, হাওড়ার হোটেলে উদ্ধার যুগলের অচৈতন্য দেহ!
নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন : 'দম্পতি' পরিচয়ে হোটেলে ঘর ভাড়া নিয়েছিল যুগল। সকালে হোটেলের বন্ধ ঘর থেকে অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার হল যুগল। গোটা ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হাওড়ার গোলাবাড়ি এলাকায়।

প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে, পূর্ব মেদিনীপুরের লক্ষ্মণচক এলাকায় বাসিন্দা ওই যুগল। নাম সরস্বতী মাইতি ও প্রীতম প্রামাণিক। নিজেদের দম্পতি বলে পরিচয় দিয়ে শুক্রবার হাওড়া গোলাবাড়ির থানা এলাকার একটি হোটেলে ওঠেন তাঁরা। হোটেলের ১০১ নম্বর রুমে ছিলেন তাঁরা। আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ ঘর পরিষ্কার করতে যান হোটেল কর্মীরা। তাঁরা তখন দেখেন, ঘরের দরজা ভিতর থেকে বন্ধ। অনেক ডাকাডাকি করেও কারও কোনও সাড়া না মেলায় এরপরই হোটেল কর্তৃপক্ষের তরফে গোলাবাড়ি থানায় খবর দেওয়া হয়। 

খবর পেয়ে আসে পুলিস। পুলিস এসে হোটেলের ঘরের দরজা ভাঙতেই ভিতরে অচৈতন্য অবস্থায় পাওয়া যায় যুগলকে। হোটেল কর্মীরা জানিয়েছেন, রাতে ওই যুগল কোনও খাবারের অর্ডার দেননি। সবমিলিয়ে গোটা ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ওই যুগল আদৌ দম্পতি কিনা? কেন কী কারণে পূর্ব মেদিনীপুর থেকে এসে হাওড়ায় হোটেল ভাড়া নিল? কীভাবে এঘটনা ঘটল? সব নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে। সবদিক খতিয়ে দেখে তদন্ত শুরু করেছে গোলাবাড়ি থানার পুলিস। 

ইতিমধ্যেই ওই যুগলের দুই পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে। পাশাপশি, হোটেল কর্মীদেরও জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে। বর্তমানে হাওড়া জেলা হাসপাতালে চিকিত্সাধীন ওই যুগল। প্রাথমিকভাবে অনুমান, বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল যুগল।

আরও পড়ুন, 'দলে থেকে দলীয় নেতাদের অসম্মান নয়', ঢিল মারলে এবার কি তবে পাটকেল খেতে হবে শুভেন্দুকে?