বাড়ছে পুলিসি প্রহরা, অনির্দিষ্টকালের জন্য কড়া নজরদারি কলকাতার ৪৫টি কনটেনমেন্ট জোনে

উল্টোডাঙা, বেলেঘাটা, ফুলবাগান, পন্ডিতিয়া, আলিপুর, এলগিন রোড, বেহালা, ভবানীপুর-সহ যেই ৪৫টি জায়গা থেকে বেশি আক্রান্তের খবর এসেছে, সেখানে বেশি নজরদারি চলবে। 

Reported By: শ্রেয়সী গঙ্গোপাধ্যায় | Edited By: Priyanka Dutta | Updated By: Jul 8, 2020, 12:03 AM IST
বাড়ছে পুলিসি প্রহরা, অনির্দিষ্টকালের জন্য কড়া নজরদারি কলকাতার ৪৫টি কনটেনমেন্ট জোনে
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: গোটা কলকাতায় লকডাউন নয়। শুধুমাত্র কনটেনমেন্ট জোনগুলোতেই পুলিসি ব্যবস্থাপনায় নজরদারি চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কলকাতায় করোনার লাগাম ছাড়া সংক্রমণ রুখতে হটস্পট চিহ্নিত করতে পুলিসকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

চিহ্নিত নির্দিষ্ট এলাকাগুলোতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ক্ষেত্রে কড়া নজরদারির চালানো হবে। এ নিয়ে কলকাতা পুলিসের উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে। সংক্রমিত এলাকার বাজারগুলি একেবারে বন্ধ রাখা যায় কি না, তা নিয়েও ভাবনা চিন্তা করছে পুলিস। 

আরও পড়ুন:  স্বাস্থ্যভবনের করোনা নিয়ন্ত্রক সেলের ১৫ জনের মধ্যে ১৪ জনই করোনা পজেটিভ

উল্টোডাঙা, বেলেঘাটা, ফুলবাগান, পন্ডিতিয়া, আলিপুর, এলগিন রোড, বেহালা, ভবানীপুর-সহ যেই ৪৫টি জায়গা থেকে বেশি আক্রান্তের খবর এসেছে, সেখানে বেশি নজরদারি চলবে। পাশাপাশি বাজার, বাগরি মার্কেট, মেহেতা বিল্ডিংয়ের মত বড় বাজারগুলি থেকে সংক্রমণ রুখতে মার্কেট কমিটির সঙ্গে কথা বলছে পুলিস।

পুরসভার তরফে স্যানিটাইজিংয়ের কাজে যেমন জোর দেওয়া হচ্ছে, ঠিক সেইরকম লকডাউনের প্রথমদিকে যে ভূমিকা নিয়েছিলেন ঠিক সেইরকম ভূমিকা নিতে বলা হচ্ছে থানার ওসিদের।