Dinhata-য় চিকিত্সা সম্ভব নয়, কলকাতায় আনা হচ্ছে আহত Udayan-কে

দিনহাটা বয়েজ ক্লাব সংলগ্ন এলাকায় তাঁর গাড়ির উপরে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা

Updated By: May 7, 2021, 06:47 PM IST
Dinhata-য় চিকিত্সা সম্ভব নয়, কলকাতায় আনা হচ্ছে আহত Udayan-কে

নিজস্ব প্রতিবেদন: দিনহাটায় আক্রান্ত তৃণমূল নেতা উয়দন গুহ-র হাতের আঘাত গুরুতর। উন্নত চিকিত্সার জন্য তাঁকে আনা হচ্ছে কলকাতায়। শুক্রবার এমনটাই জানালেন উদয়ন গুহর ছেলে সায়ন্তন গুহ।

সায়ান্তন গুহ সাংবাদিকদের জানান, আগামিকাল শনিবার তৃণমূল নেতাকে সড়ক পথে নিয়ে আসা হবে বাগডোগরা। সেখান থেকে বিমানে আনা হবে কলকাতা। গতকাল হাতে চোট পাওয়ার পর তাঁর চিকিত্সা হচ্ছিল দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে। কিন্তু তাঁর হাতের হাড় যেভাবে ভেঙেছে তাতে সেই চিকিত্সা আর দিনহাটায় হওয়া সম্ভব নয়। তাই তাঁকে কলকাতায় নিয়ে যেতে হচ্ছে। সূত্রের খবর, সম্ভবত তাঁকে ভর্তি করা হবে কলকাতার অ্যাপলো হাসপাতালে।

আরও পড়ুন-মানুষের দুয়ারে যাবে Oxygen, স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সঙ্গে জোট বেঁধে পরিষেবা রাজ্যের

এদিকে, গতকাল দুপুরে দিনহাটায় উদয়ন গুহর উপরে হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে এখনও পর্যন্ত ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। পাশাপাশি হামলার পর পাল্টা যে ভাঙচুর হয় তার জেরে ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এদিন সাংবাদিকদের কাছে উদয়ন গুহর ছেলে সায়ন্তন অভিযোগ করেন, দিনহাটা থানার আইসি সঞ্জয় দত্ত বিজেপির হয়ে কাজ করছেন। হমলায় যেসব বিজেপি কর্মী জড়িত তাদের পালিয়ে যেতে সাহায্য করেছেন তিনি। প্রসঙ্গত, ওই হামলার পর আজ রাত বারোটা পর্যন্ত দিনহাটা বনধের ডাক দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। নতুন করে আশান্তির কোনও ঘটনা না ঘটলেও দিনহাটার বিভিন্ন জায়গায় উত্তেজনা রয়েছে।

কী হয়েছিল গতকাল 

বৃহস্পতিবার দুপুর বারোটার পরে দিনহাটার তৃণমূল কংগ্রেস কার্যালয় থেকে বাড়ি ফিরছিলেন উয়দন গুহ(Udayan Guha)। পথে দিনহাটা বয়েজ ক্লাব সংলগ্ন এলাকায় তাঁর গাড়ির উপরে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। তাঁর গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। হাতে ও মাথায় আঘাত পান উদয়নবাবু। তাঁকে বাঁচাতে গিয়ে মারা খেয়েছেন তাঁর নিরাপত্তারক্ষীও। বাঁশ দিয়ে আঘাত করা হয় তাঁর মাথায়।

আরও পড়ুন-ভোট-পরবর্তী হিংসা নিয়ে ভুয়ো পোস্ট! রামকৃষ্ণ মিশনের পড়ুয়া-সহ গ্রেফতার ২  

আহত উদয়ন গুহকে নিয়ে যাওয়া হয় দিনহাটা(Dinhata) মহকুমা হাসপাতালে। সেখানে তাঁর প্রাথমিক চিকিতসা হয়।  এদিকে হামলার খবর পেয়েই দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে এসে জড়ো হন তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থকরা। হাসপাতালের বাইরে তাঁরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন।