Kartikeya: কোথাও 'সুব্রহ্মণ্যম' কোথাও তিনি 'মুরুগান'- কী ভাবে জন্ম কার্তিক ঠাকুরের?

কার্তিকেয় বা কার্তিক যুদ্ধদেবতা। দেবসেনাপতি তিনি।

Updated By: Nov 15, 2021, 10:06 PM IST
Kartikeya: কোথাও 'সুব্রহ্মণ্যম' কোথাও তিনি 'মুরুগান'- কী ভাবে জন্ম কার্তিক ঠাকুরের?

নিজস্ব প্রতিবেদন: কার্তিকঠাকুরকে নিয়ে যত মজাই করা হোক কার্তিকের পুরাণেতিহাস কিন্তু খুবই চিত্তাকর্ষক। যথেষ্ট কুলীন দেবতা তিনি।  

তাঁর জন্ম নিয়ে নানা কাহিনি আছে। একটা কাহিনিতে শোনা যায়, একদা শিব ও পার্বতীর যোগে এক জ্যোতিঃপিণ্ডের সৃষ্টি হল। রতির অভিশাপের জেরে গর্ভে সন্তান ধারণ করতে পারেননি মা পার্বতী। অগ্নিদেব সেই তেজোময় জ্যোতিঃপিণ্ডটি নিয়ে পালিয়ে গেলেন। ব্যাপারটি জেনে পার্বতী ভয়ানক রেগে গেলেন। এদিকে অগ্নিদেব ওই অগ্নিপিণ্ডের তাপ সহ্য করতে না পেরে সেটি গঙ্গায় নিক্ষেপ করলেন। সেই তেজোরাশি গঙ্গা দ্বারা বাহিত হয়ে এক রূপবান শিশুর জন্ম দিল। জন্মের পর অপূর্ব ওই কুমারকে ছয় কৃত্তিকা (কৃত্তিকা নক্ষত্রের মোট সংখ্যা ৭) স্তন্যপান করালেন। তাই এই কুমার 'কার্তিক' নামে অভিহিত হলেন। পরে পার্বতী এই শিশুকে কৈলাসে নিয়ে আসেন।  

কার্তিকেয় বা কার্তিক যুদ্ধদেবতা। দেবসেনাপতি। তারকাসুর বধের জন্য তাঁর জন্ম। তবে কার্তিক বৈদিক দেবতা নন; তিনি পৌরাণিক দেবতা। যদিও প্রাচীন ভারতে প্রায় সর্বত্রই কার্তিক পুজোর প্রচলন ছিল। কার্তিক একাধিক নামে অভিহিত– কৃত্তিকাসুত, আম্বিকেয়, স্কন্দ, শিখিধ্বজ, অগ্নিজ, শরজ, তারকারি, শক্তিপাণি, বিশাখ, ষড়ানন, ষন্মাতুর, কুমার, সৌরসেন, গৌরীসুত, আগ্নিক ইত্যাদি।

তামিল ও মালয়ালম ভাষায় কার্তিক 'মুরুগান' বা 'ময়ূরী স্কন্দস্বামী' নামে এবং কন্নড় ও তেলুগু ভাষায় 'সুব্রহ্মণ্যম' নামে পরিচিত।

(Zee 24 Ghanta App: দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)

আরও পড়ুন: Kartikeya: 'একবার আসে মায়ের সাথে একবার আসে একলা'