হাইকোর্টের রায় সত্ত্বেও বেআইনি নির্মাণ ভাঙা হচ্ছে না, বিতর্কে কাঁথি পুরসভা

পৌর আইন ভাঙার কথা স্বীকার করেছে কাঁথি পুরসভা। 

Updated By: Jul 10, 2019, 02:10 PM IST
হাইকোর্টের রায় সত্ত্বেও বেআইনি নির্মাণ ভাঙা হচ্ছে না, বিতর্কে কাঁথি পুরসভা

নিজস্ব প্রতিবেদন : রয়েছে হাইকোর্টের রায়। তবুও বেআইনি নির্মাণ ভাঙা হচ্ছে না। তদন্তে বেআইনি নির্মানের কথা মেনে নিলেও ব্যবস্থা নেওয়া নিয়ে মুখে কুলুপ কাঁথি পুরসভার কর্তা-ব্যক্তিদের। অভিযোগ উঠেছে, প্রভাবশালীদের চাপেই বিল্ডিং ভাঙতে এগোচ্ছে না পুরসভা। যদিও পৌর আইন ভাঙার কথা স্বীকার করেছে কাঁথি পুরসভা। কিন্তু ব্যবস্থা নেওয়ার ব্যাপারে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না।

আরও পড়ুন-  কাঁচরাপাড়া পুরসভা পুনর্দখলের পথে তৃণমূল? তুঙ্গে জল্পনা

কাঁথি শহরের আঠিলাগড়ি ব্রহ্মতলা বাজার এলাকার একটি বিল্ডিং-কে ঘিরে জটিলতা তৈরি হয়েছে। জবরদখল করা জমিতে দাঁড়িয়ে পেল্লায় তিন তলা ব্যবসা-ভিত্তিক বিল্ডিং। জমির মালিক পক্ষের অভিযোগ জমিটি দেবত্র সম্পত্তি। তাঁদের অভিযোগ, কাঁথির সমষ্টি ভূমি ও ভূমি সংস্কার অফিসে প্রভাব খাটিয়ে জমির মিউটেশন আদায় করা হয়েছে। প্রভাবশালী ব্যক্তি সূদর্শন মান্না ও প্রোমোটার শঙ্কর পাল এই জমি জবর দখল করেন বলে অভিযোগ। বেআইনিভাবে অতিরিক্ত জমি দখল করে বিল্ডিংটি করা হয়েছে বলে অভিযোগ। 

আরও পড়ুন-  কলেজের ফর্ম ফিল-আপ ঘিরে এবিভিপি-টিএমসিপি সংঘর্ষ, ছাত্রীকে 'ধর্ষণের' হুমকি

পুরসভায় কোনও সুরাহা না পেয়ে হাইকোর্টের দারস্থ হন জমির মালিক। মামলার রায়ে জানানো হয়, বেআইনিভাবে দখল নেওয়া হয়েছে জমি। সেই রায় বের হওয়ার পর কেটে গেছে বেশ কয়েক মাস। অভিযোগের আঙুল তোলা অনন্যা দাস জানান, আইন মাফিক পর্যাপ্ত জমিও ছাড়া হয়নি দুই বাড়ির মাঝে। পৌরসভাতে এবং পরবর্তী পর্যায়ে হাইকোর্টের দারস্থ হয়েও কোনও সুরাহা মেলেনি। কাঁথি পুরসভার পুরপ্রধান জানান, এই বেআইনি নির্মাণটির ব্যাপারে তিনি জানেন।  আইন আইনের পথে চলবে। সব রকম সহযোগিতা করা হবে।