Mamata Banerjee: 'সাবিত্রী-কৃষ্ণেন্দু ঝগড়া', মালদহে কড়া বার্তা 'বিরক্ত' মমতার

রাজ্যে কর্মসংস্থান তৈরিতে জোর।

Updated By: Dec 8, 2021, 05:38 PM IST
Mamata Banerjee:  'সাবিত্রী-কৃষ্ণেন্দু ঝগড়া', মালদহে কড়া বার্তা 'বিরক্ত' মমতার

নিজস্ব প্রতিবেদন: 'মানুষকে সাহায্য় করবেন। কিন্তু একটা জিনিস দেখে নেবেন যে ঘোঁট না পাকায়'। মালদহে প্রশাসনিক বৈঠক থেকে বিধায়ক, পঞ্চায়েত  ও জেলা পরিষদের জনপ্রতিনিধিদের বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। নাম করেই বললেন, 'সাবিত্রী আর কৃষ্ণেন্দু ঝগড়া করলে চলবে না। কৃষ্ণেন্দু আর নীহারের ঝগড়া করলে চলবে না। মনে রাখবেন, সরকারটা অনেক বড়। দলটাও অনেক বড়। আপনাদের ঝগড়া করা শোভা পায় না। সহযোগিতা করে কাজ করতে হবে'।

ফের জেলা সফরে মুখ্যমন্ত্রী। গতকাল, মঙ্গলবার উত্তর দিনাজপুরের কর্নজোড়ায় প্রশাসনিক বৈঠক করেছিলেন তিনি। সেই বৈঠকে যোগ দিয়েছিলেন দক্ষি দিনাজপুরের প্রশাসনিক আধিকারিকরাও। আর এদিন প্রশাসনিক বৈঠক হল মালদহে। এই বৈঠকে দলের জনপ্রতিনিধিদের যেমন একযোগে কাজ করার বার্তা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee), তেমনি কর্মসংস্থান তৈরির উপরও জোর দিলেন তিনি। বললেন, 'এ  রাজ্যে চাকরি করতে হলে বাংলা ভাষা জানতে হবে। বাংলা তাঁর ঠিকানা হতে হবে'।

আরও পড়ুন:  Manikchak: ইংরেজবাজারে মমতা, মানিকচকে চাকরির দাবিতে অনশনে জমিদাতারা

কেন আঞ্চলিক ভাষা জানা জরুরি? সে ব্যাখ্যাও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায়, 'আমরা অনেক সময় কমিশন তৈরি দিই। তারা চাকরি দেয় নম্বরের ভিত্তিতে। হয়তো অন্য জায়গা থেকে এসেছে, খুব ভালো নম্বর পেয়েছে। চাকরিটা সে পেয়ে গেল, কিন্তু স্থানীয় ছেলে-মেয়ে চাকরি পেল না। কারণ, তাঁদের নম্বর কম।  সে কিন্তু বাংলা ভাষাটা জানে না। ফলে মানুষ যখন বিডিও, এসডিও কিংবা স্থানীয় কোনও আধিকারিক কাছে যাচ্ছে, তখন বাংলায় কথা বলছে। সে বাংলা বোঝেই না। যে অঞ্চলে কাজ করবে, সেই অঞ্চলের ভাষাটা জানতে হবে। না হলে মানুষের সমস্যা শুনব কী করে? সমাধান করব কী করে'?

আরও পড়ুন: Mamata Joyswal: 'সিপিএমের সঙ্গে যোগাযোগ নেই', তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন হাওড়ার প্রাক্তন মেয়র

রাজ্যের মহিলাদের জন্য 'লক্ষ্মীর ভাণ্ডার'-সহ একাধিক প্রকল্প চালু করেছে সরকার। এই 'লক্ষ্মীর ভাণ্ডার' প্রকল্পে ST, SC ও OBC সম্প্রদায়ের মহিলারা মাসে ১ হাজার টাকা করে ভাতা পাচ্ছেন, আর সাধারণ মহিলারা ৫০০ টাকা। বস্তুত, পুজোর আগেই মহিলাদের অ্যাকাউন্টে টাকা ঢুকেও গিয়েছে। আবার অনেকে টাকা পাননি এখনও। এদিন প্রশাসনিক বৈঠকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। সঙ্গে বিধায়ক, পঞ্চায়েত ও জেলা পরিষদের জনপ্রতিনিধিদের তাঁর 'অনুরোধ', 'সাহায্য করবেন মানুষ। কিন্তু একটা জিনিস দেখে নেবেন,  যে ঘোঁট না পাকায়।  আমি নিজে সবার থেকে বড়, এটা যেন না হয়। মনে রাখবেন, আপনার মাথার উপর সরকার আছে। যদি কোনও ভুলভ্রান্তি হয়ে থাকে, তাহলে আপনারা সরকারকে ধরিয়ে দেবেন'। সরকারি আধিকারিকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার না করার কথাও বলেন মুখ্যমন্ত্রী।

Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)