ঘুড়ি ওড়াতে গিয়ে বিদ্যুত্স্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু যুবকের, আশঙ্কাজনক আরও ৪

Updated By: Sep 18, 2017, 08:37 PM IST
ঘুড়ি ওড়াতে গিয়ে বিদ্যুত্স্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু যুবকের, আশঙ্কাজনক আরও ৪

ওয়েব ডেস্ক: বিশ্বকর্মা পুজোয় ঘুড়ি ওড়াতে গিয়ে বিদ্যুত্‍স্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হল এক যুবকের। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি তাঁর ছোট্ট মেয়ে। বিদ্যুত্‍স্পৃষ্ট হল মৃতের পরিবারের আরও ৪জন। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে সোনারপুরের পূর্বপল্লিতে।

পুজোর আনন্দ বদলে গেল দুঃখে। ঘুড়ি ওড়াতে গিয়ে বিদ্যুত্‍স্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হল যুবকের। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি তাঁর ছোট্ট মেয়ে। সোনারপুরের দক্ষিণ পাঁচপোতার পূর্বপল্লি। বিশ্বকর্মা পুজোর বিকেলে ছাদে জড়ো হয়েছিল ওরা।

বছর ৩৫-এর সঞ্জীব দাস, তাঁর ৬ বছরের মেয়ে অনুষ্কা, বছর ১১-র পূজা, ১৩ বছরের দীপ, দেড় বছরের অনির্বাণ। আকাশে তখন ঘুড়ির মেলা। পেটকাটি, চাঁদিয়াল, মোমবাতি...নীল আকাশে রঙের আঁকিবুকি। ঘুড়ি ওড়ানোর আনন্দে ওখন ওরা বিভোর। ঠিক সেই সময়ই ঘটে গেল মর্মান্তিক দুর্ঘটনা।

রোগ সারাতে ডাক্তারবদ্যি নয়, হাসপাতালের ভিতর চলছে ঝাড়ফুঁক!

বাড়ির ছাদে ঘুড়ি ওড়াচ্ছিলেন সঞ্জীব। সঙ্গে ৪ শিশু। প্রত্যেকেই খালি পায়ে ছিল। হাইটেনশন তারে ভিজে সুতো জড়িয়ে বিদ্যুত্‍স্পৃষ্ট হন সঞ্জীব। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। ৪ শিশুও বিদ্যুত্‍স্পৃষ্ট হয়। বিস্ফোরণের আওয়াজ শুনে ছাদে ছুটে আসেন সঞ্জীবের ভাই সৌরভ। শিশুদের বাঁচাতে গিয়ে তিনিও বিদ্যুত্‍স্পৃষ্ট হন।

সঞ্জীবের মেয়ে অনুষ্কা আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। সঞ্জীবের ভাই এবং বাকি শিশুদের প্রাথমিক চিকিত্সার পর ছেড়ে দেওয়া হয়।

প্রেমিকের সঙ্গে পরিকল্পনা করে স্বামীকে খুন করে পুঁতে দিল স্ত্রী