'খাবার নেই', ১০০ কিমি পায়ে হেঁটে ঝাড়খণ্ড থেকে পুরুলিয়ায় বাড়িতে এলেন শ্রমিক দম্পতি

ঠিকাদার সংস্থা থেকে সরকার, কেউ কোনও সাহায্য করেনি। অভিযোগ দম্পতির।

Updated By: Apr 15, 2020, 01:52 PM IST
'খাবার নেই', ১০০ কিমি পায়ে হেঁটে ঝাড়খণ্ড থেকে পুরুলিয়ায় বাড়িতে এলেন শ্রমিক দম্পতি

নিজস্ব প্রতিবেদন : করোনার জেরে লকডাউন। বন্ধ ট্রেন, বাস, গাড়িঘোড়া সব। অগত্যা উপায় হাঁটা। ১০০ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে পুরুলিয়ার আড়সায় বাড়িতে পৌঁছলেন এক পরিযায়ী শ্রমিক দম্পতি। 

ঝাড়খণ্ডের ঝরিয়া শিল্পাঞ্চলে দৈনিক মজুরের কাজ করতেন আদিবাসী শ্রমিক দম্পতি। লকডাউনের পর ভেবেছিলেন ওখানেই ঘরবন্দি হয়ে কাটিয়ে দেবেন।  কিন্তু অভিযোগ, ঠিকাদার সংস্থা থেকে ঝাড়খণ্ড সরকার, কারও কাছ থেকেই কোনও সাহায্য পাননি। তাই পেটে টান পড়তেই সিদ্ধান্ত বদল করেন। পায়ে হেঁটে বাড়ি ফেরার সিদ্ধান্ত নেন। 

যেমন ভাবা তেমন কাজ। শুরু করেন হাঁটা। ওই দম্পতি জানিয়েছে, পথে  কিছু সহৃদয় মানুষ সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন । রাতে রাস্তাতেই কোনও গৃহস্থ বাড়ির বারান্দায় বিশ্রাম নিয়েছেন । ভোর থেকে আবার হাঁটা শুরু করেন। অবশেষে ১০০ কিলোমিটার পথ হেঁটে গ্রামের বাড়িতে পৌঁছন।

এখন লকডাউনের জন্য সীমান্ত সিল করার কথা ঘোষণা করেছে সরকার। কিন্তু তাহলে এই দম্পতি কী করে বিনা বাধায় হেঁটে এক রাজ্য থেকে আরেক রাজ্যে চলে এলেন? ইতিমধ্যেই সেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। পথে পুলিস বা প্রশাসন কেউ-ই তাদের আটকায়নি বলে জানিয়েছে দম্পতি। প্রসঙ্গত, করোনার সতর্কতাবিধি অনুযায়ী, ভিন রাজ্য থেকে কেউ এলে তাঁর স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক। 

আরও পড়ুন, মাস্ক না পরে রাস্তায় বেরোলেই ধরছে পুলিস, এখনও পর্যন্ত কলকাতায়