মোটা অঙ্কের টাকা নিয়ে বন্ধুর বাড়ি গিয়েছিলেন মুচিপাড়ার ব্যবসায়ী, ৫ দিন পর গঙ্গার ধার থেকে উদ্ধার দেহ

মুচিপাড়া থানায় বারবার নিখোঁজ অভিযোগ জানাতে গেলেও পরিবারকে ফিরিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। শেষমেষ ডিসি সেন্ট্রাল মুচিপাড়া থানার ওসিকে ফোন করে এফআইআর নিতে নির্দেশ দেন। 

Updated By: Jul 6, 2020, 05:26 PM IST
মোটা অঙ্কের টাকা নিয়ে বন্ধুর বাড়ি গিয়েছিলেন মুচিপাড়ার ব্যবসায়ী, ৫ দিন পর গঙ্গার ধার থেকে উদ্ধার দেহ
ছবিটি প্রতীকী

নিজস্ব প্রতিবেদন: পাঁচদিন নিখোঁজ থাকার পর অবশেষে উদ্ধার মুচিপাড়ার হোটেল ব্যবসায়ীর দেহ। রবিবার নর্থ পোর্ট থানা এলাকার রামকৃষ্ণ ঘাট থেকে উদ্ধার হয় ভূপাল মুখার্জি ওরফে ববির দেহ। খুনের অভিযোগ পরিবারের। সন্দেহের তীর বন্ধু সূরজ সোনকারের দিকে। 

মুচিপাড়া থানায় বারবার নিখোঁজ অভিযোগ জানাতে গেলেও পরিবারকে ফিরিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। শেষমেষ ডিসি সেন্ট্রাল মুচিপাড়া থানার ওসিকে ফোন করে এফআইআর নিতে নির্দেশ দেন। 

অভিযোগ, ২৯ জুন ভূপালকে ফোন করে ডাকে সূরজ। সেদিন রাতে বাড়ি ফেরেননি তিনি। মোবাইলও সুইচড অফ। ৩০ জুন সকালে মুচিপাড়া থানায় অভিযোগ জানাতে যায় পরিবার। সেইসময় সূরজকে ফোন করলেও সে ধরেনি। 

অন্য নম্বর থেকে ফোন করলে ভূপালের ফোন ধরে সূরজ। বলে, রাতেই ভূপাল তাঁর বাড়ি থেকে বেরিয়ে গেছে। পরে ভূপালের বাড়িতে ফোন ফেরত দিয়ে সে জানায়, ভুল করে ফোন ফেলে রেখে গেছে ভূপাল। ২ জুলাই নিমতলার ভূতনাথ মন্দিরের কাছে পাওয়া যায় ভূপালের মোটরবাইক। 

পরিবারের দাবি, সূরজের কথাবার্তায় অসঙ্গতি রয়েছে। মাঝেমধ্যেই ভূপালের কাছে টাকাপয়সা ধার নিত সূরজ। তবে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে অভিযুক্তের মেয়ে। ভূপাল মুখার্জির বাঁ দিকের পাঁজরের অংশে আঘাতের চিহ্ন মিলেছে। তদন্ত শুরু হয়েছে।