WB Assembly Election 2021: ভোটের মুখে উত্তপ্ত পূর্বস্থলী, জনসংঘ করায় মারধর একই পরিবারের ৩ জনকে

ভারতীয় জনসংঘ নেতা রানা সিনহা বলেন, আমরা আগে বিজেপি করতাম। কিন্তু  বিজেপির পূর্বস্থলীর প্রার্থী আমাদের পছন্দ হয়নি। তাই জনসংঘে যোগ দিয়েছি

Updated By: Mar 26, 2021, 11:40 AM IST
WB Assembly Election 2021: ভোটের মুখে উত্তপ্ত পূর্বস্থলী, জনসংঘ করায় মারধর একই পরিবারের ৩ জনকে

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভোটের আগে উত্তপ্ত হয়ে উঠল পূর্বস্থলীর নতুন দামপাল চর এলাকা। ভারতীয় জনসংঘ করার অপরাধে তিন ভাই ও তাদের পরিবারের লোকজনকে মারধর করে আটকে রাখার অভিযোগ উঠল বিজেপির কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন-প্রথম দফার আগে রাজ্যের সীমানায় নজরদারি,  ৫০% বুথে ওয়েবকাস্টিং

বৃহস্পতিবার রাতের এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল পূর্বস্থলী(Purbasthali) থানার নতুন দামপাল চর এলাকায়। আটকে রাখা দুই ভাইকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে পূর্বস্থলী গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিস। একজনের আঘাত গুরুতর হওয়ার কারণে তাকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে রেফার করা হয়েছে। 

ঘটনার সূত্রপাত বৃহস্পতিবার রাতে। নতুন দামপাল চর এলাকায় এক ঘরোয়া বৈঠক চলছিল বিজেপির(BJP)। সেই মিটিংয়ে গ্রামেরই ছেলে ও বিক্ষুব্ধ বিজেপি কর্মী বলে পরিচিত সুজয় বিশ্বাসকে ফোন করে ডাকা হয়। কয়েকদিন আগেই সে ভারতীয় জনসংঘ দলে যোগ দেয়। অভিযোগ, বৈঠক  চলাকালীন বিজেপির কর্মীরা সুজয়কে চড় থাপ্পর মারে।

আরও পড়ুন-কোভিড হাসপাতালে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, আগুনে পুড়ে মৃত ২

এদিকে, বাড়িতে এসে ঘটনার কথা জানায় সুজয়। এরপরেই তার দাদা বাবলু বিশ্বাস ও সঞ্জয় বিশ্বাস ঘটনাস্থলে গিয়ে ভাইকে মারার কারণ জিজ্ঞাসা করতেই বিজেপি কর্মী সমর্থকরা তার উপর চড়াও হয় বলে অভিযোগ। বাবলু ও সঞ্জয়কে আটকে রাখার অভিযোগ ওঠে। খবর পেয়ে পূর্বস্থলী থানার পুলিস ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই দুই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে। রাত দশটা নাগাদ তাঁদের উদ্ধার করে পূর্বস্থলী ব্লক হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।  এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত বিজেপির কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

এনিয়ে ভারতীয় জনসংঘ নেতা রানা সিনহা বলেন, আমরা আগে বিজেপি করতাম। কিন্তু  বিজেপির পূর্বস্থলীর প্রার্থী আমাদের পছন্দ হয়নি। তাই জনসংঘে যোগ দিয়েছি। কয়েকদিন আগে আমরা মিছিলও বের করেছিলাম। এতেই ক্ষুব্ধ বিজেপি শিবির। তারই জেরে আমাদের কর্মীদের মারধর করা হচ্ছে।