চন্দ্রযান ২-এর জন্য ইসরোকে শুভেচ্ছা পাকিস্তানের প্রথম মহিলা মহাকাশচারীর

চন্দ্রযান-২ অভিযানের পর ভারতকে শুভেচ্ছা জানালেন পাকিস্তানের প্রথম মহিলা মহাকাশচারী নামিরা সালিম।

Updated By: Sep 8, 2019, 09:26 AM IST
চন্দ্রযান ২-এর জন্য ইসরোকে শুভেচ্ছা পাকিস্তানের প্রথম মহিলা মহাকাশচারীর

নিজস্ব প্রতিবেদন: চন্দ্রযান-২-এর অভিযান ৯০ থেকে ৯৫ শতাংশ সফল, মত ইসরোর। কিন্তু এই অভিযানে প্রত্যাশিত সাফল্য না মেলায় টুইট করে তীব্র কটাক্ষ করেন পাকিস্তানের বিজ্ঞান মন্ত্রী ফাওয়াদ হুসেন। কিন্তু পাকিস্তানের বিজ্ঞান মন্ত্রী যা-ই বলুন না কেন, চন্দ্রযান-২ অভিযানের পর ভারতকে শুভেচ্ছা জানালেন পাকিস্তানের প্রথম মহিলা মহাকাশচারী নামিরা সালিম।

একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে চন্দ্রযান-২ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, “চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে ল্যান্ডার বিক্রমের সফট ল্যান্ডিংয়ের ঐতিহাসিক প্রচেষ্টার জন্য আমি ভারত আর ইসরোকে শুভেচ্ছা জানাই।” নামিরা জানান, এই অভিযান হাকাশ গবেষণার ক্ষেত্রে সত্যিই একটা বিড়াট পদক্ষেপ। পাকিস্তানের প্রথম মহিলা মহাকাশচারীর মতে, এই অভিযানে ভারত বা দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়াই নয়, লাভবান হবে গোটা বিশ্ব।

আরও পড়ুন: ইসরোর চন্দ্রাভিযানে আমরা উজ্জীবিত, মহাকাশ গবেষণায় একসঙ্গে কাজ করতে চাই: নাসা

স্যার রিচার্ড ব্র্যানসনস ভার্জিন গ্যালাকটিক স্পেসলাইন থেকে পাকিস্তানের প্রথম মহিলা মহাকাশচারী হিসাবে মহাকাশে গিয়েছিলেন নামিরা সালিম। তিনিই প্রথম মহিলা যিনি মাউন্ট এভারেস্টে স্কাইডাইভ করেছিলেন। তাঁর মতে, কোনও মহাকাশ গবেষণায় বা এই রকম কোনও মহাকাশ অভিযানের সুফল কোনও নির্দিষ্ট দেশ বা অঞ্চলের উপর নির্ভর করে না। এর ফলে উপকৃত হয় গোটা বিশ্ব।