গ্রীষ্মকালে লম্বা দিন, কমিয়ে আনা হোক রোজা রাখার সময়, প্রস্তাব ব্রিটেনে

সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত রোজা রাখার অর্থ, নির্জলা ভাবে ১৯ ঘণ্টা কাটানো। রোজার সময় কোনও খাবারও খাওয়া যায়না। ব্রিটেনে রোজা রাখার সময় মধ্যপ্রাচ্য বা বিশ্বের যেকোনো দেশের রোজা রাখার সময়ের তুলনায় বেশি। প্রায় ১ দিন না খেয়ে থাকলে তৈরি হতে পারে নানান রকম সমস্যা। তাই গ্রীষ্মকালে লম্বা দিন হওয়ার জন্য ব্রিটেনে রোজা রাখার সময় কমিয়ে আনার সুপারিশ করা হয়েছে। সংবাদ সংস্থার তথ্য অনু্যায়ী ব্রিটেনে বসবাসরত মুসলিমদের কাছে এই সুপারিশ করেছে ব্রিটেনরই একটি শীর্ষস্থানীয় মুসলিম ফাউন্ডেশন। 

Updated By: Jun 14, 2015, 05:59 PM IST
গ্রীষ্মকালে লম্বা দিন, কমিয়ে আনা হোক রোজা রাখার সময়, প্রস্তাব ব্রিটেনে

ওয়েব ডেস্ক: সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত রোজা রাখার অর্থ, নির্জলা ভাবে ১৯ ঘণ্টা কাটানো। রোজার সময় কোনও খাবারও খাওয়া যায়না। ব্রিটেনে রোজা রাখার সময় মধ্যপ্রাচ্য বা বিশ্বের যেকোনো দেশের রোজা রাখার সময়ের তুলনায় বেশি। প্রায় ১ দিন না খেয়ে থাকলে তৈরি হতে পারে নানান রকম সমস্যা। তাই গ্রীষ্মকালে লম্বা দিন হওয়ার জন্য ব্রিটেনে রোজা রাখার সময় কমিয়ে আনার সুপারিশ করা হয়েছে। সংবাদ সংস্থার তথ্য অনু্যায়ী ব্রিটেনে বসবাসরত মুসলিমদের কাছে এই সুপারিশ করেছে ব্রিটেনরই একটি শীর্ষস্থানীয় মুসলিম ফাউন্ডেশন। 

ব্রিটেন উত্তর মেরুর কাছে। তাই গ্রীষ্মকালের মাঝামাঝি দিন বেশি লম্বা হয়। ইসলামে ভারসম্য ও নমনীয়তার কথা বলা হয়েছে। সেই অনু্যায়ী রোজার সময় কমিয়ে আনার আবেদন করছে ওই সংস্থা। মক্কার মত ১২ থেকে ১৪ ঘণ্টা রোজা রাখার পক্ষে সহমত দিয়েছেন ব্রিটেনের ওই শীর্ষস্থানীয় মুসলিম ফাউন্ডেশন। তবে ব্রিটেনের অনেক মুসলিমই এই প্রস্তাব মেনে নেননি। তাঁরা চিরাচরিত প্রথার পক্ষেই সওয়াল করেছেন। তাঁরা মনে করেন রোজা যতক্ষণই রাখা হোক না কেন, মানুষের শরীর তাতে অভ্যস্ত হয়ে পরে। এতে সমস্যা কোনও হয় না। তাদের মতে 'আল্লাহ্‌ই আমাদের রোজা রাখতে সাহায্য করে'।

রোজার সময়সীমা নিয়ে মুসলিমদের মধ্যে কয়েকশো বছর ধরে এই বিতর্ক চলছে।