স্পাইডারম্যান হওয়ার ইচ্ছে, মাকড়শার কামড়ে তিন ভাই মৃত্যুর মুখে

বলিভিয়ার চায়ান্তা প্রদেশের লালাগুয়া শহরের ঘটনা।

Updated By: May 28, 2020, 12:16 AM IST
স্পাইডারম্যান হওয়ার ইচ্ছে, মাকড়শার কামড়ে তিন ভাই মৃত্যুর মুখে

নিজস্ব প্রতিবেদন— তিন ভাইয়েরই ইচ্ছে, স্পাইডারম্যান হবে। সিনেমা দেখার পর থেকেই তিনজন যেন একটা ঘোরের মধ্যে চলে গিয়েছিল। বাড়ির লোক সেটার আন্দাজ পেয়েছিল। কিন্তু কে জানত, তিনজনেই এমন একখানা কাণ্ড করে বসবে! অলীক কল্পনার বসে তিন ভাই আজ মৃত্যুর মুখে। তিন ভাইয়ের বয়স যথাক্রমে ৮, ১০ ও ১২ বছর। অর্থাত্ তিনজনেরই ভাল—মন্দ বোঝার বয়স সেভাবে হয়নি। আর তাই তারা বুঝতে পারেনি ব্ল্যাক উইডো স্পাইডার ঠিক কতটা ভয়ানক! তিন ভাই—ই আপাতত মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। 

বলিভিয়ার চায়ান্তা প্রদেশের লালাগুয়া শহরের ঘটনা। স্পাইডারম্যান সিনেমার নায়ক মাকড়শার কামড় খাওয়ার পর অতিমানবিক শক্তির অধিকারী হয়েছিল। সেই গল্পকে বাস্তবের মতো মনে করেছিল তিন ভাই। তিনজনই খুদে। তাই বুঝতে পারেনি ওটা আসলে গল্প। বাস্তবে মাকড়শার কামড় খেলে কোনও শক্তির অধিকারী হওয়া যায় না। সুপারহিরো হওয়ার নেশায় বুঁদ হয়ে তিনজনে ব্ল্যাক উইডো স্পাইডার—এর কামড় খায়। বিষাক্ত মাকড়সার কামড় খেয়ে তিনজনের অবস্থাই আশঙ্কাজনক। বলিভিয়ার স্বাস্থ্য দফতরের মুখপাত্র ভিজিলিয়ো পিয়েত্রো বলেছেন, বাচ্চারা অনেক সময়েই সিনেমা বা কর্টুনের অনেক কিছু সত্যি বলে মনে করে নেয়। অনেক সময় অভিভাবকরা টের পায় না। বিপদ ঘটে যায় তখনই।

আরও পড়ুন— ‘সংঘাত চায় না চিন, LAC-র উত্তেজনার জন্য দায়ি ভারতের সীমান্ত নীতি’

তিন ভাই লাঠি দিয়ে একটি বিষাক্ত ব্ল্যাক উইডো স্পাইডারকে উত্ত্যক্ত করতে থাকে। এর পর মাকড়শাটি তাদের তিনজনকে কামড়ে দেয়। বিষক্রিয়া শুরু হয়ে যায় কিছুক্ষণ পর থেকেই। সারা শরীরে ব্যথার সঙ্গে হৃদস্পন্দন বেড়ে যায় অস্বাভাবিকভাবে। তিন ভাইয়ের শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে। তার পর তাদের বলিভিয়ার রাজধানী লা পাজের একটি শিশু হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। একটি বিষাক্ত সাপের থেকে ব্ল্যাক উইডো স্পাইডার—এর কামড় ১৫ গুণ বেশি শক্তিশালী। ব্ল্যাক উইডো স্পাইডার—এর কামড়ে মৃত্যুর ঘটনাও হামেশাই ঘটে।