করোনায় আক্রান্তদের মৃত্যুর আগেই খোঁড়া হয়েছে কয়েকশো গণকবর, বিতর্কে প্রশাসন

ইউক্রেনের ডিনিপ্রো শহরের কাছাকাছি একটি অঞ্চলে কয়েকশো কবর খোঁড়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদসংস্থা এএফপি।

Updated By: Apr 8, 2020, 12:16 PM IST
করোনায় আক্রান্তদের মৃত্যুর আগেই খোঁড়া হয়েছে কয়েকশো গণকবর, বিতর্কে প্রশাসন

নিজস্ব প্রতিবেদন— করোনার থাবায় জেরবার গোটা বিশ্ব। রোজই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মারণ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। মারা যাচ্ছেন বহু মানুষ। ইতালি, স্পেন, আমেরিকাসহ বিশ্বের একাধিক দেশে চলছে মৃত্যুমিছিল। তবে ইউক্রেনের প্রশাসনের মতো এমন সিদ্ধান্ত হয়তো কোনও দেশ নেয়নি। এ তো যেন হারের আগেই হেরে বসে থাকা! করোনায় প্রচুর মানুষের মৃত্যু হতে পারে এমনটা যেন ধরেই নিয়েছে ইউক্রেনের প্রশাসন। আর তাই আগে থেকেই গণকবর খোঁড়া শুরু করেছে তারা। প্রথমে লুকিয়ে কাজটা সেরে রাখতে চেয়েছিল তারা। কিন্তু পরে লোকজানাজানি হতেই প্রবল বিতর্ক ও সমালোচনার মুখে পড়েছে সেই দেশের প্রশাসনিক কর্তারা।

ইউক্রেনের ডিনিপ্রো শহরের কাছাকাছি একটি অঞ্চলে কয়েকশো কবর খোঁড়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদসংস্থা এএফপি। এমন খবর প্রকাশ্যে আসতেই ইউক্রেনের মানুষ সরকারের সমালোচনা শুরু করেছেন। ডিনিপ্রো শহরের মেয়রের মুখপাত্র ইউলিয়া ভিটভিটস্টি বলেছেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে যারা মারা যাবেন, তাদের কথা মাথায় রেখে ৬১৫টি কবর খনন করা হয়েছে। মৃতদেহ বহন করার জন্য দুহাজার ব্যাগ প্রস্তুত করে রাখা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। তবে এসবের মাঝে শহরবাসীকে ঘরবন্দি থাকার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

আরে পড়ুন— স্বাভাবিক হল করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল, লকডাউন উঠল সাত সপ্তাহ পর

ডিনিপ্রো শহরের ঠিক বাইরে বনভূমি ঘেরা একটি অঞ্চলে এই গণকবর খোঁড়া হয়েছে। সরকারের এমন পদক্ষেপ ইতিমধ্যে ভাবিয়ে তুলেছে দেশের মানুষকে। ইউক্রেনে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন দেড় হাজার মানুষ। ৪৫ জনের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে এরই মধ্যে। এর মধ্যে ডিনিপ্রো শহরে ১৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তবে এই শহরে এখনও কারও মৃত্যুর খবর নেই। তাই আগে থেকেই এমন গণকবর খোঁড়ার সিদ্ধান্ত কেন নিল প্রশাসন, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।