ভবাদিঘি যাওয়ার পথে আক্রান্ত বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য

ভবাদিঘি যাওয়ার পথে আক্রান্ত বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। গোঘাটের কাছে পথ আটকে বিক্ষোভ তৃণমূলের। গাড়ি থেকে নামিয়ে বিকাশরঞ্জ ভট্টাচার্যকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। 

Updated By: Apr 1, 2017, 06:57 PM IST
ভবাদিঘি যাওয়ার পথে আক্রান্ত বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য

ওয়েব ডেস্ক: ভবাদিঘি যাওয়ার পথে আক্রান্ত বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। গোঘাটের কাছে পথ আটকে বিক্ষোভ তৃণমূলের। গাড়ি থেকে নামিয়ে বিকাশরঞ্জ ভট্টাচার্যকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। 

আইনি পরামর্শ চেয়েছিলেন ভবাদিঘির আন্দোলনকারীরা। সে জন্যই তাঁদের সঙ্গে কথা বলতে যাচ্ছিলেন বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে সেভ ডেমোক্রেসির প্রতিনিধি দল। গোঘাটের উল্লাসপুরের কাছে আরামবাগ-কামারপুকুর রাজ্য সড়কে তাঁদের গাড়ি আটকানো হয়। গাড়ি থেকে নামতেই আক্রান্ত হন বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। ক্রমাগত চলতে থাকে ধাক্কা ধাক্কি। আক্রান্ত হন সেভ ডেমোক্রেসির অন্য সদস্যরাও।

আইপিএলের উদ্বোধনে বিসিসিআই সংবর্ধনা দেবে পাঁচ কিংবদন্তিকে

ঘটনাস্থল থেকেই রাজ্য পুলিসের ডিজিকে ফোন করার চেষ্টা করেন বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। পরে আরামবাগের SDPO-র অফিসে গিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। তাঁদের দাবি, গোঘাটে যাওয়া থেকে শুধুমাত্র আটকে দেওয়া হয়েছে সিপিএম নেতাদের।

রাজ্যে মুখ খুলতে পারছেন না বিরোধীরা। অভিযোগ জানাতে শনিবারই রাজ্যপালের দ্বারস্থ হন কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী। গোঘাটের ঘটনাও রাজ্যপালকে জানিয়ে এসেছেন তিনি। ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। জানানো হয়েছে পুলিসের পক্ষ থেকে।

সঞ্জয় দত্তের সঙ্গে কাজ করে তাঁকে বাস্তবের সুপার হিরো মনে হচ্ছে অদিতির