বনধ করলেই প্রহারেণ ধনঞ্জয়, দলের 'ট্র্যাডিশন' বজায় রেখেই খুল্লমখুল্লা হুমকি তৃণমূলের বিধায়কের

বনধ করলেই প্রহারেণ ধনঞ্জয়। খুল্লমখুল্লা হুমকি দিলেন তৃণমূল বিধায়ক বনমালী হাজরা। বর্ধমানের নাসিকগ্রাম বাজারে তাঁর সোজাসাপটা ঘোষণা, এমন শিক্ষা দিতে হবে যাতে দ্বিতীয়বার বনধ ডাকার সাহস না পায় বিরোধীরা।

Updated By: Sep 5, 2015, 08:00 PM IST
বনধ করলেই প্রহারেণ ধনঞ্জয়, দলের 'ট্র্যাডিশন' বজায় রেখেই খুল্লমখুল্লা হুমকি তৃণমূলের বিধায়কের

ব্যুরো: বনধ করলেই প্রহারেণ ধনঞ্জয়। খুল্লমখুল্লা হুমকি দিলেন তৃণমূল বিধায়ক বনমালী হাজরা। বর্ধমানের নাসিকগ্রাম বাজারে তাঁর সোজাসাপটা ঘোষণা, এমন শিক্ষা দিতে হবে যাতে দ্বিতীয়বার বনধ ডাকার সাহস না পায় বিরোধীরা।

কোনও রাখঢাক নয়। পতাকা ছাড়া দলের ছেলেদের নামিয়ে দেওয়া নয়। জনতার স্বতঃস্ফূর্ত ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশের অজুহাতও নয়। ভাতারের বিধায়ক জানিয়ে দিলেন, বন‍্‍ধ রুখতে কী হবে তৃণমূলের দাওয়াই।   

শাসক দলের নেতাদের মুখে অবশ্য এমন গরম কথা আগেও শোনা গেছে। অনুব্রত-মণিরুল-তাপস পাল তো বটেই। বড়-মেজ-ছোট বহু নেতাই অতীতে মারকাটারি হুমকি দিয়েছেন।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় 
যুব তৃণমূল সভাপতি
বসিরহাট, (০৭.০৫.২০১৫)

অরূপ চক্রবর্তী
বাঁকুড়া জেলা সভাধিপতি
মনিয়াডিহি, (০১.০৭.২০১৪)

নির্মল মাঝি
তৃণমূল বিধায়ক
কলকাতা, (২০.০৮.২০১৫)

এই তালিকায় নবতম সংগঠন ভাতারের বনমালী হাজরা। তৃণমূল কর্মীদের ওপর তাঁর বক্তব্যের কী প্রভাব পড়ে তা জানতে অপেক্ষা আরেকটি ধর্মঘটের।