কাল ভোটের ফল, অপেক্ষায় রাজ্য, গণনা কেন্দ্রে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা, কাউন্টডাউন শুরু

কাল ভোটের রেজাল্ট আউট। চলছে ভোট গণনার শেষমুহুর্তের প্রস্তুতি। রাজ্যজুড়ে কাল ৯০টি কেন্দ্রে ভোট গণনা হবে। প্রতি কেন্দ্রেই নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা। কলকাতায় মোট ২৩৩টি জায়গায় থাকছে পুলিস পিকেটিং। এছাড়াও বিভিন্ন জায়গায় মোতায়েন থাকবে অতিরিক্ত পুলিস বাহিনী। যে ৯টি গণনাকেন্দ্র থাকছে শহরে, সেখানেও মাছি গলার জো রাখা হচ্ছে না।

Updated By: May 18, 2016, 03:40 PM IST
কাল ভোটের ফল, অপেক্ষায় রাজ্য, গণনা কেন্দ্রে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা, কাউন্টডাউন শুরু

ওয়েব ডেস্ক: কাল ভোটের রেজাল্ট আউট। চলছে ভোট গণনার শেষমুহুর্তের প্রস্তুতি। রাজ্যজুড়ে কাল ৯০টি কেন্দ্রে ভোট গণনা হবে। প্রতি কেন্দ্রেই নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা। কলকাতায় মোট ২৩৩টি জায়গায় থাকছে পুলিস পিকেটিং। এছাড়াও বিভিন্ন জায়গায় মোতায়েন থাকবে অতিরিক্ত পুলিস বাহিনী। যে ৯টি গণনাকেন্দ্র থাকছে শহরে, সেখানেও মাছি গলার জো রাখা হচ্ছে না।

জেলার গণনাকেন্দ্রগুলিতে কড়া নিরাপত্তা। প্রত্যেক গণনা কেন্দ্রে থাকছে ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা বলয়। গণনা কেন্দ্রে জারি থাকবে ১৪৪ ধারা। প্রতিটি গণনা কেন্দ্রের জন্য ব্যবস্থা থাকছে পুলিসের RT মোবাইল ভ্যান এবং পুলিসেরই বাইক ফোর্স গণনা কেন্দ্রের দায়িত্বভার শুধুই কেন্দ্রীয় বাহিনীর হাতে। এজন্য কাল মোট ৭ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকছে শহরে। কাউন্টিং সেন্টারের ১০০ মিটারের মধ্যে ঢুকতে পারবে না কলকাতা পুলিস। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবিলায় তৈরি থাকছে বিশাল পুলিস ফোর্স। পরিস্থিতিতে কড়া নজর রাখতে থাকবেন অতিরিক্ত ১৪ জন ডিসি পদমর্যাদার অফিসারও।

রাজ্যজুড়ে ৯০টি কেন্দ্রে ভোট গণনা হবে। প্রতি কেন্দ্রেই নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা। কলকাতায় মোট ২৩৩ জায়গায় থাকছে পুলিস পিকেটিং। এছাড়াও বিভিন্ন জায়গায় মোতায়েন থাকবে অতিরিক্ত পুলিস বাহিনী। যে ৯টি গণনাকেন্দ্র থাকছে শহরে, সেখানেও মাছি গলার জো রাখা হচ্ছে না। জেলাতেই সমান তত্‍পরতা। গণনা কেন্দ্রে পৌছে গেছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। দেখে নেওয়া হচ্ছে শেষমুহুর্তের খুঁটিনাটি। প্রত্যেক গণনা কেন্দ্রে থাকছে ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা বলয়। গণনা কেন্দ্রে জারি থাকবে ১৪৪ ধারা। প্রতিটি গণনা কেন্দ্রের জন্য ব্যবস্থা থাকছে পুলিসের RT মোবাইল ভ্যান এবং পুলিসেরই বাইক ফোর্স। গণনা কেন্দ্রের দায়িত্বভার শুধুই কেন্দ্রীয় বাহিনীর হাতে। এজন্য মোট ৭ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকছে শহরে। কাউন্টিং সেন্টারের ১০০ মিটারের মধ্যে ঢুকতে পারবে না কলকাতা পুলিস। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবিলায় তৈরি থাকছে বিশাল পুলিস ফোর্স। পরিস্থিতিতে কড়া নজর রাখতে থাকবেন অতিরিক্ত ১৪ জন ডিসি পদমর্যাদার অফিসারও। প্রতি কাউন্টিং সেন্টারে থাকবেন একজন পর্যবেক্ষক। গণনা কেন্দ্রের ভেতরে যতগুলি টেবিল থাকবে ততজন মাইক্রো অবসার্ভার। গণনার ফল বাড়ি বসেই জানতে হলে ক্লিক করুন ECI ওয়েবসাইটে। সকাল ৮টা থেকে গণনা শুরু। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের অনুমান ১২টার মধ্যেই নবান্নের মসনদ কার দখলে তা পরিস্কার হয়ে যাবে।

কাল, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে চোখ রাখুন ২৪ঘণ্টা ডট কমে। সব খবর সবার আগে।